চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে হবে

করোনাভাইরাস মহামারিতে বলতে গেলে প্রায় ভেঙে পড়া শিক্ষা খাতে প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে আসছে। প্রায় দেড় বছর পর রোববার থেকে খুলছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্লাস শুরুর প্রস্তুতি নিচ্ছে প্রতিষ্ঠানগুলো।

চ্যানেল আইয়ের প্রতিবেদনে জানা যায়, স্কুলগুলোর প্রবেশমুখে রাখা হচ্ছে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, মাস্কসহ স্বাস্থ্যসুরক্ষার উপাদান। তাছাড়া ডেঙ্গু রোগের যেন বিস্তার না ঘটে সেজন্যও নেয়া হচ্ছে পদক্ষেপ। শ্রেণীকক্ষ ও টয়লেটগুলোও পরিস্কার পরিচ্ছন্ন করা হচ্ছে। সবখানেই স্বাস্থ্যসুরক্ষার নানা সামগ্রী রাখা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এছাড়া শিক্ষকরা শুরুতে নিজেরা সভা করছেন যে, কিভাবে সব কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে। পরে তারা বসেছেন অভিভাবকদের সঙ্গে, কিভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সন্তানদের স্কুলে পাঠাবেন সে বিষয়ে আলোচনা করতে।

গত বছরের ৮ মার্চ দেশে করোনার সংক্রমণ দেখা দেয়ার পর ১৮ মার্চ থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি ঘোষণা করা হয়। তারপর থেকে বিভিন্ন দফায় ছুটি বাড়িয়ে এ পর্যন্ত বন্ধ ছিল দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো। এখন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার এ কার্যক্রম আশার আলো জাগিয়ে তুলছে।

শিক্ষা খাত যেকোন দেশের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। করোনাভাইরাস মহামারিতে শিক্ষা ব্যবস্থা ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এ ক্ষতি যেন দীর্ঘস্থায়ী না হয় তা সামলে নিতে অনলাইনে শিক্ষা কার্যক্রম চালু ছিল। নাহলে ক্ষতির মাত্রা আরও বাড়ত। তবুও শিক্ষার জন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানই যথাযথ। এজন্য শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের জীবন রক্ষা এবং শিক্ষাব্যবস্থা চালু রাখার স্বার্থে প্রতিষ্ঠানের ভেতরে বাইরে স্বাস্থ্যবিধি মানার উদ্যোগ গ্রহণ করতে আমরা সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

বিজ্ঞাপন