চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শিক্ষকদের প্রসঙ্গে বলতে বাধ্য হলেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী

সাম্প্রতিক সময়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিশেষ করে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকদের মধ্যে কোন্দলের খবর প্রায়ই গণমাধ্যমে উঠে আসছে। শিক্ষকের বিরুদ্ধে সহকর্মী শিক্ষকের মামলা, হামলাসহ মিছিল-মানববন্ধনসহ নানা ধরনের কর্মকাণ্ডের খবর ইতোমধ্যে এসেছে। এতে শিক্ষার্থীদের কাছে এমনকি সারাদেশের মানুষের কাছে শিক্ষকতার মতো মহান পেশার প্রতি শ্রদ্ধাবোধ প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে। আশঙ্কার বিষয় হচ্ছে, কোনো কোনো ক্ষেত্রে শিক্ষকদের এই দ্বন্দ্ব শুধু শিক্ষকদের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকে না। তারা নিজেদের এই দ্বন্দ্বের মধ্যে শিক্ষার্থীদের টেনে আনেন। নিজেদের আধিপত্য বজায় রাখতে তারা অনেক ক্ষেত্রে প্রতিপক্ষ শিক্ষকের গায়ে হাত তোলা, এমনকি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ভাঙচুরের কাজেও শিক্ষার্থীদের ব্যবহার করেন। তাদেরকে মানুষ হওয়ার শিক্ষা দেওয়ার বদলে শ্রদ্ধাভাজনদের শায়েস্তা করার শিক্ষা দেন। এ বিষয়ে শুক্রবার ছাত্রলীগের জাতীয় সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন: ‘শিক্ষকদের সঙ্গে শিক্ষকের দ্বন্দ্বের মাঝে ছাত্রদের টেনে এনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিবেশ খারাপ করা হচ্ছে। এটা সহ্য করা হবে না।’ প্রধানমন্ত্রীর এই বক্তব্যের সঙ্গে আমরা একমত পোষণ করছি। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখা এবং শিক্ষকদের প্রতি মানুষের অকৃত্রিম শ্রদ্ধাবোধ অক্ষুণ্ণ রাখতে শিক্ষকরা আরও সচেতন হবেন বলে আমরা আশা করি। মানুষ গড়ার কারিগররা ক্ষুদ্র স্বার্থে শিক্ষার্থীদের ব্যবহার করার বদলে তাদেরকে মানুষ হিসেবে গড়ে তুলবেন বলেই আমাদের আশা।