চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শাহিনবাগে নাগরিকত্ববিরোধী আইনের প্রতিবাদ খারিজ করেছে সুপ্রিম কোর্ট

ভারতের দিল্লির শাহিনবাগ অবরোধ মামলায় সুপ্রিম কোর্ট বললেন, ‘প্রতিবাদ ও মতবিরোধ প্রকাশের অধিকার নির্দিষ্ট কিছু কর্তব্য নিয়ে আসে। যে কোনও সময় এবং সর্বত্র অনুষ্ঠিত হতে পারে না।

এক আদেশে সুপ্রিম কোর্ট ২০১৯ সালের দিল্লির শাহিন বাগে অনুষ্ঠিত নাগরিকত্ববিরোধী আইনের প্রতিবাদ সম্পর্কিত একটি পর্যালোচনা আবেদন খারিজ করে দিয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, শাহিন বাগের নাগরিকত্ববিরোধী আইন-বিক্ষোভকে অবৈধ বলে উল্লেখ করে ২০২০ সালের অক্টোবরে সুপ্রিম কোর্টের রায়কে কেন্দ্র করে ১২ জন কর্মী একটি রিভিউ পিটিশন দায়ের করেছিলেন।

বিজ্ঞাপন

সেই পিটিশনের সুপ্রিম কোর্ট পক্ষ থেকে জানানো হয়, প্রতিবাদের অধিকার যে কোনও সময় এবং সর্বত্র হতে পারে না। কিছু স্বতঃস্ফূর্ত প্রতিবাদও হতে পারে তবে দীর্ঘস্থায়ী মতবিরোধ বা প্রতিবাদের ক্ষেত্রে অন্যের অধিকারকে প্রভাবিত করে জনসাধারণের স্থান দখল করা যাবে না।

বিচারপতি এস কে কলের তিন বিচারকের বেঞ্চ, অনিরুদ্ধ বোস এবং কৃষ্ণ মুরারি পুনর্বিবেচনার আবেদন খারিজ করার সময় এসব কথা বলেন। গত ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যালোচনা আবেদনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও গতকাল গভীর রাতে এই আদেশ আসে।

তিন বিচারকের বেঞ্চ পুনর্গঠিত করে বলেছে যে, বিক্ষোভের জন্য জনসাধারণের জায়গা দখল করা যাবে না এবং জনগণের বিক্ষোভ অবশ্যই ‘নির্ধারিত স্থানে’ হওয়া উচিত।

বিজ্ঞাপন