চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শামীমার সেঞ্চুরিতে রানার্সআপ ঢাকা

ব্যাট হাতে একাই লড়লেন শামীমা সুলতানা। করলেন অসাধারণ এক সেঞ্চুরি। পরে বল হাতে ২ উইকেট নিয়ে রাখলেন অবদান। কক্সবাজারে বাংলাদেশ দলের এই ক্রিকেটারের অলরাউন্ড নৈপুণ্যে রংপুরকে ১৬ রানে হারিয়ে জাতীয় ক্রিকেট লিগে রানার্সআপ হয়েছে ঢাকা। মঙ্গলবার চট্টগ্রামকে হারিয়ে এবারও চ্যাম্পিয়ন হয়েছে সিলেট।

শেখ কামাল আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে রানার্সআপ হওয়ার দ্বৈরথে ঢাকার কাছে লড়াই করে হারে রংপুর। ১৯৪ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে ৫০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৭৭-এ থামে দলটি। ফাহিমা খাতুন করেন সর্বোচ্চ ৪৩ রান। ১০ ওভারে ৩৩ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন নিপা আক্তার।

বিজ্ঞাপন

শামীমার ১০৫ রানের ইনিংসের পরও দুইশ পার করতে পারেনি ঢাকা। ১৩৩ বলে ১১ চারের সাহায্যে এ ডানহাতি ব্যাটার সাজান ইনিংসটি। ওপেনিংয়ে নেমে আউট হন ৪৯তম ওভারে। ঢাকার পক্ষে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সংগ্রহ ছিল তানজিলা আক্তারের (২১)।

ফাহিমা, সাথিরা জাকির জেসি ও ফারিহা ইসলাম দুটি করে উইকেট নেন।

ম্যাচসেরা হয়েছেন সেঞ্চুরিয়ান শামীমা

বিজ্ঞাপন

লিগের শেষদিন অপর ম্যাচে বরিশালকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে খুলনা। ১৫৭ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে আয়শা রহমান শুকতারার ফিফটি, রুমানা আহমেদ (৩৬) ও সুলতানা ইয়াসমিন বৈশাখীর (৩১*) ত্রিশোর্ধ্ব রানের ইনিংসে ৯.২ ওভার হাতে রেখে ৬ উইকেট খরচায় ম্যাচ জেতে তারা।

বরিশালের হয়ে খেলা বাঁহাতি স্পিনার নাহিদা আক্তার ১০ ওভারে ১৯ রান দিয়ে নেন ৪ উইকেট।

আগে ব্যাট করে ৪৮.১ ওভারে ১৫৬ রানে গুটিয়ে যায় বরিশাল। ফারজানা হক পিংকি ৬৭, নুজহাত জাহান ৩৭ ও ওপেনার রুবাইয়া হায়দার করেন ২৪ রান।

রুমানা ও তাহিরা তাহেরা নেন ৪টি করে উইকেট। অলরাউন্ড নৈপুণ্যে ম্যাচসেরা হয়েছেন বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক রুমানা।

দেশের আট বিভাগের অংশগ্রহণে জাতীয় লিগে ১২ পয়েন্ট নিয়ে শিরোপা জেতে সিলেট। ১০ পয়েন্ট নিয়ে রানার্সআপ ঢাকা। খুলনা, ময়মনসিংহ ও রংপুরের পয়েন্ট সমান ৮। বরিশাল ৬ ও রাজশাহী ৪ পয়েন্ট নিয়ে লিগ শেষ করেছে। সাত ম্যাচেই হার দেখায় চট্টগ্রাম কোনো পয়েন্ট পায়নি।

Bellow Post-Green View