চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শান্তিতে নোবেলের অংশীদার বাংলাদেশও

পরমাণু অস্ত্র মুক্ত বিশ্ব গড়ার লক্ষ্যে ইন্টারন্যাশনাল ক্যাম্পেইন টু অ্যাবলিশ নিউক্লিয়ার উইপন্স- আইক্যানের সঙ্গে এ বছরের নোবেল শান্তি পুরস্কারের অংশীদার বাংলাদেশের দুইটি প্রতিষ্ঠান। প্রতিষ্ঠান দুটি হচ্ছে- ফিজিশিয়ান্স ফর সোশ্যাল রেসপন্সিবিলিটি (পিএসআর) ও সেন্টার ফর বাংলাদেশ স্টাডিজ।

গত শতাব্দির ৮০ দশকের শুরুতে শীতল যুদ্ধের সময় বিশ্বকে পরমাণু যুদ্ধের হাত থেকে রক্ষা করতে যাত্রা শুরু করে ইন্টারন্যাশনাল ফিজিশিয়ানস ফর দ্য প্রিভেনশন অব নিউক্লিয়ার ওয়ার। সে সময়ের সেভিয়েত ইউনিয়ন ও যুক্তরাষ্ট্রের একদল চিকিৎসকের গড়া সংগঠনটি ১৯৮৫ সালে নোবেল শান্তি পুরস্কার পায়।

বিজ্ঞাপন

পরমাণু অস্ত্রমুক্ত বিশ্ব গড়ার লক্ষ্যে ২০০৭ সালে অন্যান্য পেশাজীবীদের সমন্বয়ে গঠন করা আইপিপিএসডাব্লিউ’র ক্যাম্পেইন ‘আইক্যান’ এ বছর নোবেল শান্তি পুরস্কার পেয়েছে। বিশ্বের ১শ’১টি দেশের ৪শ’ ৬৪ প্রতিষ্ঠান ‘আইক্যান’ ক্যাম্পেইনে কাজ করছে। আর বাংলাদেশে ক্যাম্পেইনটি পরিচালনা করে আসছে ফিজিশিয়ান্স ফর সোশ্যাল রেসপন্সিবিলিটি ও সেন্টার ফর বাংলাদেশ স্টাডিজ। সে সূত্রে এবারের শান্তিতে নোবেল পুরস্কারের অংশীদার বাংলাদেশও।

আইক্যানের নোবেল পুরস্কার অর্জন বাংলাদেশসহ দক্ষিণ এশিয়ায় পরমাণু অস্ত্র ধ্বংসের উদ্যোগে কাজ করা সংগঠনগুলোর মধ্যে কাজের ক্ষেত্রে গতি আনবে বলে মনে করছে পিএসআর বাংলাদেশ।

পরমাণু অস্ত্রমুক্ত বিশ্ব গড়তে এ ধরনের অস্ত্রমুক্ত দেশগুলোকে এক হওয়ার আহ্বান জানিয়েছে পিএসআর বাংলাদেশ।

বিজ্ঞাপন