চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আগের কমিটিকে দোষারোপ করলেন জায়েদ

বিজ্ঞাপন

টানা দুইবার শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছেন জায়েদ খান। তার আগে কমিটির নেতৃত্বে সভাপতি ছিলেন শাকিব খান ও সাধারণ সম্পাদক অমিত হাসান।

আগের কমিটির সাধারণ সম্পাদক অমিত হাসানের বিরুদ্ধে অভিযোগের আঙুল তুললেও সভাপতি শাকিব খানের বিরুদ্ধে নেই জায়েদের কোনো অভিযোগ!

pap-punno

চ্যানেল আই অনলাইনের সঙ্গে আলাপকালে জায়েদ খান বললেন, শাকিব ভাই খুব ভালো মানুষ। তার সময়ে সমিতির কিছু অনিয়ম থাকলেও তিনি এসবের মধ্যে ছিলেন না। শাকিব ভাই ব্যস্ত স্টার। সবসময় কাজের মধ্যে ডুবে ছিলেন। তাকে যা বোঝানো হতো তিনি আপন মনে তাই বিশ্বাস করতেন। তবে সাধারণ পদে থেকে অমিত হাসান অনিয়ম করেছেন।

Bkash May Banner

জায়েদের অভিযোগ, ‘সমিতির গঠনতন্ত্র অনুযায়ী নির্দিষ্ট পরিমাণ সিনেমা মুক্তি না পেলেও অমিত হাসান টাকা নিয়ে সদস্যপদ দিয়েছেন। শাকিব ভাই নির্দোষ। অমিত হাসান এসব কিছু করেছেন।’

গণমাধ্যমে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে সম্প্রতি অমিত হাসান বলেছেন, জায়েদ খানের কমিটি ১৮৪ জন শিল্পীর ভোটাধিকার বাতিল করেছে। তারা কি মাছ বিক্রি করেন? সেলুনে চাকরি করেন? চিত্রনায়িকা ইরিন জামান, শিমু ইসলাম কি মাছ বিক্রি করেন! সদস্যপদ দেওয়ার ক্ষেত্রে কোনো অন্যায় হয়নি। আমি কী অন্যায় করেছি, বলতে হবে। আমি ওপেন চ্যালেঞ্জ ছুড়লাম। কোনো অন্যায় করিনি।

অমিত হাসানের এমন মন্তব্যের প্রেক্ষিতে জায়েদ খান বলেন, আমি অনেকগুলো নাম বলতে পারবো যারা একটাও সিনেমায় অভিনয় করেনি। তাদেরকে অমিত হাসান টাকা নিয়ে সদস্য পদ দিয়েছেন। আমি তো তাদের সদস্যপদ বাতিল করিনি। তারা সহযোগী সদস্য রয়েছে। তারা কমপক্ষে পাঁচটি সিনেমায় গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করলে মূল সদস্য করা হবে। অমিত হাসান এই চেয়ারটায় বসে অন্যায় করে গেছেন। এই অন্যায় আমি করবো না।

আসন্ন শিল্পী সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে পারে আগামী জানুয়ারিতে। সেখানে আবারও সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচনে অংশ নেবেন জায়েদ খান। তিনি বলেন, ‘ছোট থেকে সংগঠন বা নেতৃত্ব দেয়ায় আগ্রহ বেশি। এজন্য ছাত্র থাকাকালীন সংগঠন করেছি। বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াকালীন রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলাম।

বিজ্ঞাপন

Bellow Post-Green View
Bkash May offer