চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা ও হাইকোর্টে জানাজা শেষে নোয়াখালীতে হবে মওদুদ আহমদের দাফন

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক মন্ত্রী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের মরদেহ সর্বস্তরের জনসাধারণের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার সকাল ৯টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মরদেহ রাখা হলে সর্বস্তরের মানুষ মরহুমকে শ্রদ্ধা জানান।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

শহীদ মিনার থেকে সকল ১০টায় হাইকোর্ট প্রাঙ্গণে নামাজের জানাজা শেষে নয়া পল্টন বিএনপি কেন্দ্রীয় অফিসের সামনে সকাল ১১ টায় নামাজের জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর হেলিকপ্টারে করে নিজ জেলা নোয়াখালী নিয়ে যাওয়া হবে। নোয়াখালী বসুরহাট ও কোম্পানিগঞ্জ উপজেলা মাঠে নামাজের জানাজা শেষে পারিবারিক করব স্থানে বাবা মা’র কবরের পাশে দাফন করা হবে।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার বিকালে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে সিঙ্গাপুর থেকে ঢাকায় আনা হবে ব্যারিস্টার মওদুদের মরদেহ। এরপর রাত ১০টার দিকে ঢাকার অ্যাপোলো হাসপাতালের হিমঘরে রাখা হয়।

১৬ মার্চ শারীরিক অসুস্থ নিয়ে সিঙ্গাপুরের মাউন্ড এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়  বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের।  সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় চলতি সপ্তাহে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়, ফুসফুসে পানি জমে গিয়েছিলো।

ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী (১৯৮৮-১৯৮৯)। এর আগে উপ-রাষ্ট্রপতি, উপ-প্রধানমন্ত্রী (১৯৭৬-১৯৭৮ এবং ১৯৮৭-১৯৮৮) হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন।

তিনি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) ও জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতাদের অন্যতম। অষ্টম জাতীয় সংসদে আইন ও বিচার বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী ছিলেন প্রবীণ এই রাজনীতিবিদ। বর্তমানে তিনি বিএনপির স্থায়ী কমিটির একজন সদস্য।