চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শর্ট বলে আউট নিয়ে চিন্তিত নন ম্যাকেঞ্জি

অতি-আত্মবিশ্বাসেই ব্যাটিং ব্যর্থতা?

সিলেট থেকে: বাংলাদেশের ব্যাটিং দেখে শুরুতে ধন্দে পড়ার মতো অবস্থা, বল আসলেই মারতে উদ্যত হচ্ছেন তামিম, লিটন, সৌম্য। তাদের খেলার ধরণ দেখে মনে হচ্ছিল যেন টি-টেন চলছে! বলের গতি, উইকেটের বাউন্স বুঝে ওঠার আগেই উইন্ডিজ পেসারদের উপর চড়াও হতে গিয়ে তাদের চড়া মূল্যই দিতে হয়েছে।

দুইঅঙ্ক পেরোনোর আগেই ব্যাটিং ত্রয়ী আউট হয়েছেন শর্ট বলে পুল করতে গিয়ে। যদিও তাদের আউট হওয়ার ধরণ নিয়ে চিন্তিত নন বাংলাদেশের ব্যাটিং কোচ নিল ম্যাকেঞ্জি।

সাউথ আফ্রিকান এ কিংবদন্তি মনে করেন, শর্ট বল খেলতে দুর্বলতা নয় তাদের খেলার মাঝে ছিল অতি-আত্মবিশ্বাসের ছাপ। যেটি কাল হয়েছে প্রথম টি-টুয়েন্টিতে।

Advertisement

‘যেভাবে তারা শর্ট বল খেলেছে, আমি তা নিয়ে শঙ্কিত নই। আমার মনে হয় খেলাটা হয়েছে অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাস থেকে। সবাই চেষ্টা করেছে একের পর এক মারতে। মাঝেমাঝে আক্রমণ করার চাইতে স্থির থেকে খেলা কাজে দেয়।’

ম্যাচের আগেরদিন নেট অনুশীলনে যেভাবে নিজেদের বোলারদের সুতো ছিঁড়েছে বাংলাদেশ, তেমন করেই যেন ক্যারিবীয় দ্রুতগতির বোলারদের খেলতে চেয়েছিলেন টপঅর্ডার! ম্যাচের ২২ গজে তামিম, লিটন, সৌম্যদের খেলার ধরণে সেটার ইঙ্গিত।

গতিময় ক্যারিবীয় পেসারদের বিপক্ষে সফল হতে আরেকটু চৌকস হওয়া দরকার ছিল, এমনটা মনে করেন ম্যাকেঞ্জি। ৬১ রানের ইনিংস খেলা সাকিবের প্রশংসা করলেও শুরুর তিন ব্যাটসম্যান আরেকটু চতুর হতে পারতেন বলে আক্ষেপ প্রোটিয়াদের সাবেক ব্যাটসম্যানের।

‘আমরা নেটে প্রচুর বড় শট অনুশীলন করেছিলাম। তবে গেম প্ল্যান আর নির্দিষ্ট বোলারের ওপর তা কতটা কার্যকর হবে, সেটার উপর এর সাফল্য নির্ভর করে। এমন বোলারদের বিপক্ষে চড়াও হতে হবে যাদের বলের গতি একটু কম। যারা একটু দ্রুত গতির তাদের সামলাতে একটু স্মার্ট হতে হবে।’