চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শপথ নিয়েই যেসব নির্বাহী আদেশ বাইডেনের

শপথ নেওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বেশ কিছু নীতি নির্বাহী আদেশে বাতিলের করে দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

এক টুইট বার্তায় তিনি বলেন, যেসব সংকটের মুখোমুখি আমরা আছি সেসব নিয়ন্ত্রণের জন্য নষ্ট করার মতো কোনো সময় নেই।

বিজ্ঞাপন

প্রথম দিনেই করোনাভাইরাস সংকটে রাষ্ট্রীয় প্রতিক্রিয়া বাড়ানোর পদক্ষেপসহ অন্তত ১৫টি নির্বাহী আদেশে সই করেন বাইডেন। যার মধ্যে আছে জলবায়ু পরিবর্তন ও অভিবাসন নিয়ে ট্রাম্প প্রশাসনের অবস্থান পরিবর্তনের আদেশ।

নির্বাহী আদেশ নিয়ে দেওয়া এক বিবৃতিতে বাইডেন বলেন, ট্রাম্প প্রশাসনের গভীর ক্ষতিগুলোকে ঘুরিয়ে ফেলার জন্য শুধু নয় বরং আমাদের দেশকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য পদক্ষেপ নিবো।

বিজ্ঞাপন

নতুন সব আদেশে করোনাভাইরাস সংকট মোকাবেলায় বেশ কিছু আইন কার্যকর হবে। মাস্ক পরিধান এবং সব ধরনের ফেডারেল সরকারের সম্পত্তিতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা বাধ্যতামূলক হবে।  নতুন অফিস করা হবে এই সংকট প্রতিক্রিয়া সমন্বয় করার জন্য। ট্রাম্প প্রশাসনের শুরু করা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা থেকে সরে আসার প্রক্রিয়াও স্থগিত হবে।

বাইডেনের প্রশাসনের অগ্রাধিকার থাকবে জলবায়ু পরিবর্তনের উপরও।  ২০১৫ সালের প্যারিস জলবায়ু চুক্তিতে আবার সংযুক্ত হওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করার নির্বাহী আদেশেও সই করেছেন বাইডেন। যেখান থেকে ট্রাম্প আনুষ্ঠানিকভাবে গত বছর সরে আসে।

বাইডেন তেল পরিবহন পদ্ধতি বিতর্কিত কীস্টোন এক্সএল পাইপলাইনকে দেওয়া প্রেসিডেন্টের অনুমতিও বাতিল করেছেন, যেটা নিয়ে পরিবেশবাদী এবং স্থানীয় আমেরিকান দলগুলি এক দশকেরও বেশি সময় ধরে লড়াই করেছে।

মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল তোলার জন্য অর্থ সহায়তা দেওয়ার ট্রাম্প প্রশাসনের দেওয়া জরুরি ঘোষণাও বাতিল করা হয়েছে। সেই সঙ্গে মুসলিমপ্রধান বেশ কিছু দেশের উপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা সমাপ্তি করা হচ্ছে।

আরো বেশ কিছু আদেশ দেওয়া হয়েছে বর্ণ ও লিঙ্গসমতাকে ঘিরে।