চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শখের বিলাসবহুল প্যান্টহাউস বিক্রি করে দিচ্ছেন ব্রিটিশ ধনকুবের ডাইসন

সিঙ্গাপুরে সুউচ্চ ও সুরম্য অট্টালিকায় কেনা নিজের শখের প্যান্টহাউস (ফ্ল্যাট) বিক্রি করে দিচ্ছেন  ব্যাগলেস ভ্যাকুয়াম ক্লিনিয়ারের উদ্ভাবক ও ব্রিটিশ ধনকুবের জেমস ডাইসন ও তার স্ত্রী। যেটি তিনি ও তার স্ত্রী মিলে গত বছর ৭৪ মিলিয়ন সিঙ্গাপুরীয়ান ডলার বা ৫৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্য খরচ করে ক্রয় করেছিলেন।

বিজনেস টাইমস পত্রিকার প্রতিবেদনে অনুকরণে এনডিটিভি এই খবর দিয়েছে। তারা জানায়, ৬২ ডলারের অফার উঠেছে এর জন্য। যা তার ক্রয়মূল্য থেকে ১৫ শতাংশ কমে।

বিজ্ঞাপন

জানা যায়, এর ক্রেতা ইন্দোনেশিয়ান বংশোদ্ভূত মার্কিন নাগরিক টাইকুন লিও কোগুয়ান, তিনি ইনফোটেক সরবরাহকারী এসএইচআই ইন্টারন্যাশনালের চেয়ারম্যান ও সহপ্রতিষ্ঠাতা।

বিজ্ঞাপন

আকাশছোঁয়া ভবনের সবচেয়ে ওপরের তিনটি তলায় এই প্যান্টহাউসে আছে মোট পাঁচটি শয়নকক্ষ। আছে সুইমিংপুল, ৬০০ বোতল ওয়াইন ভরা মদের ভান্ডার (পাব সেন্টার), ম্যাসাজ সেন্টার ও একটি উদ্যান। বিলাসবহুল এই ফ্ল্যাটের একসময় মূল্য ছিলো ১০০ মিলিয়ন সিঙ্গাপুরীয়ান ডলার সিঙ্গাপুরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত ওয়ালিক রেসিডেন্স ভবনে এটি অবস্থিত। ৬৪ তলাবিশিষ্ট ওয়ালিক রেসিডেন্স ভবনের ৬২ থেকে ৬৪ তলা পর্যন্ত প্যান্টহাউসটির আয়তন ২১ হাজার ফুটের বেশি।

যুক্তরাজ্যের বেক্সিটপন্থী ব্যবসায়ী ডাইসন গত জানুয়ারিতে নিজেদের ইলেকট্রনিক পণ্য তৈরির প্রতিষ্ঠানের প্রধান সদর দপ্তর লন্ডন থেকে সরিয়ে এশিয়ার সুপার পাওয়ার অর্থনীতির দেশ সিঙ্গাপুরে স্থানান্তরের ঘোষণা দেয়ার পর এই প্যান্টহাউসটি কিনেছিলেন।

প্যা্ন্টহাউস বিক্রি করে দিলেও সিঙ্গাপুরে ডাইসনের অন্য একটি পরিবেশবান্ধব বিলাসবহুল বাড়ি রয়েছে। এছাড়াও  নিয়মিত গবেষণা ও ব্যবসায়ের  অফিস থাকবে সিঙ্গাপুরে।