চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

লিভারপুলের কান্না ভেজা জয়

ইনজুরিতে পড়েছেন সালাহ

লিভারপুল আরও একবার ম্যানচেস্টার সিটিকে দেখিয়ে দিল যে, শিরোপা দৌড়ে শেষ সেকেন্ড পর্যন্ত লড়াই জারি রাখবে তারা। শনিবার নিউক্যাসলের মাঠে নাটকীয় জয় পেয়েছে ইয়ুর্গেন ক্লপের দল। কিন্তু অলরেডদের নাটকীয় জয় শেষ পর্যন্ত পরিণত হয়েছে কান্না ভেজা জয়ে। কারণ ইনজুরিতে পড়েছেন দলের সেরা তারকা মোহামেদ সালাহ।

ম্যাচ যখন ২-২ গোলে ড্রতে শেষ হওয়ার দিকে, তখন ৮৬ মিনিটে দারুণ এক হেডে গোল করে দলের জয় নিশ্চিত করেন পরিবর্তিত হিসেবে নামা ডিভক ওরিজি। বেলজিয়ান তারকার হেডে গুরুত্বপূর্ণ তিন পয়েন্টও নিশ্চিত হয় লিভারপুলের।

বিজ্ঞাপন

জয়ের ফলে ম্যানসিটির চেয়ে দুই পয়েন্টে এগিয়ে শীর্ষে চলে গেছে লিভারপুল। যদিও পেপ গার্দিওলার দলের দুটি ম্যাচ বাকী রয়েছে। লিভারপুলের ম্যাচ বাকী একটি। দুই ম্যাচের একটিতে অবশ্য ঘরের মাঠে লেস্টার পরীক্ষায় নামতে হবে সিটিজেনদের। লিভারপুল বাকী একমাত্র ম্যাচ ঘরের মাঠে উলভসের বিপক্ষে।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের যখন আর মাত্র আটদিন বাকী, তখন পয়েন্ট টেবিলের এমন চেহারা আগে কখনো দেখা যায়নি। লিভারপুলের ৯৪ পয়েন্টে বিপরীতে ম্যানসিটির পয়েন্ট ৯২। কিন্তু তৃতীয় স্থানে থাকা টটেনহ্যাম হটস্পার ২০ পয়েন্টেরও বেশি ব্যবধানে পিছিয়ে।

বার্সেলোনার বিপক্ষে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচের মতো এই ম্যাচে ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রবের্তো ফিরমিনোকে ছাড়া শুরু করে লিভারপুল। দ্বিতীয়ার্ধে মরার ওপর খাড়ার ঘা হয়ে দাঁড়ায় সালাহ’র ইনজুরি। নিউক্যাসল গোলকিপার মার্টিন দুব্রাভকার সঙ্গে সংঘর্ষের পর স্ট্রেচারে করে মাঠ ছাড়তে হয় মিশরীয় সুপারস্টারকে। মাথায় গুরুতর আঘাত পেয়েছেন তিনি। সালাহকে কতদিন মাঠের বাইরে থাকতে হবে সেটা এখনো নিশ্চিত নয়।

বিজ্ঞাপন

বার্সার কাছে ৩-০ গোলে প্রথম লেগে হারের পর এই ম্যাচে লিভারপুলের পারফরম্যান্স নিয়ে অনেকেই চিন্তায় ছিলেন। কিন্তু টানা আটটি লিগ ম্যাচ জিতে সিটির সঙ্গে রেসের ঘোড়া ভালোভাবেই ছুটিয়ে চলছেন ক্লপের শিষ্যরা।

প্রতিপক্ষের মাঠ হলেও খেলাটা নিজেদের স্টাইলেই শুরু করে লিভারপুল। ১৩ মিনিটের সময় হেড থেকে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন ভার্জিল ফন ডিক। সাত মিনিট পর ক্রিস্টিয়ান আস্তুর গোলে সমতায় ফেরে নিউক্যাসল। ২৮ মিনিটে দুর্দান্ত এক গোলে লিভারপুলকে দ্বিতীয়বার লিড এনে দেন সালাহ।

প্রথমার্ধে ২-১ গোলের লিড নিয়ে বিরতিতে যায় লিভারপুল। তবে ফিরে এসে লিড বেশি সময় ধরে রাখতে পারেনি তারা। ৫৪ মিনিটে স্কোরলাইন ২-২ করেন স্বাগতিক ফরোয়ার্ড সলোমন রন্ডন।

ম্যাচ যখন ২-২ ড্রতে শেষ হওয়ার পথে এগোচ্ছিল, তখন গোল করে দলকে নাটকীয় জয় এনে দেন সালাহ’র পরিবর্ত হিসেবে নামা ওরিজি। বাকী সময়ে আর কোনো গোল না হওয়ায় জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে লিভারপুল।

জয় দিয়ে প্রিমিয়ার লিগ শিরোপা জয়ের দৌড় টিকিয়ে রাখলেও সালাহ’র চোখের জলে মাঠ ছাড়তে হয়েছে। মঙ্গলবার ঘরের মাঠে বার্সার বিপক্ষে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের দ্বিতীয় লেগের ম্যাচ। এরপর ইপিলে ঘরের মাঠে ম্যাচ আছে উলভসের বিপক্ষে।

Bellow Post-Green View