চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

লিপবাম কি ঠোঁটের জন্য ভালো?

সুন্দর এক জোড়া ঠোঁটের বিকল্প নেই। কিন্তু শীতে ঠোঁট ফাটে অনেকেরই। আর ঠোঁট ফাটা কমাতে ব্যবহার করা হয় নানা ধরণের লিপবাম। কিন্তু সাময়িক আরাম মিললেও লিপবামের কারণে আরও বেশী শুষ্ক হয়ে যেতে পারে ঠোঁট।

শীতকালে বাতাসের আর্দ্রতা কম থাকে। তাই ঠোঁট শুকিয়ে ফেটে যায়। আর তাছাড়া ত্বকের মতো কোনো তেলগ্রন্থি নেই ঠোঁটের। তাই ঠোঁট শুকিয়ে যায় বেশী। তখন বার বার ঠোঁট জিভ দিয়ে ভেজানো হয় বা লিপবাম ব্যবহার করা হয়। টুলেন ইউনিভার্সিটির ডার্মাটোলজির প্রফেসর ডক্টর লিয়াহ জ্যাকবের মতে, এটি একটি চক্র। ঠোঁট শুকাবে, লিপবাম লাগানো হবে। এরপর লিপবামের ময়শ্চার ইভাপোরেট হয়ে ঠোঁট আরও বেশী শুকাবে।

Advertisement

জ্যাকবের জানান, কিছু কিছু লিপবামে এমন কিছু উপাদান থাকে যেগুলো সাময়িক স্বস্তি দিলেও পরে ঠোঁট আরও বেশী শুকিয়ে ফেলে। মেনথল, সালিসাইলিচ এসিড, সিনামিক আল্ডেহাইড এবং পিপারমিন্ট ফ্লেভারযুক্ত এই লিপবামগুলোর ঘ্রাণ চমৎকার হয় এবং আকর্ষণীয় মোড়কে থাকে। কিছু কিছু লিপবাম লাগালে ঠোঁটে হালকা গোলাপি আভা আসে। তাই ক্রেতারাও আকৃষ্ট হয় এগুলোর প্রতি। কিন্তু এই উপাদানগুলোই সেনসিটিভ ঠোটের ত্বককে আরও সেনসিটিভ করে দেয় এবং এবং অনেকসময় অ্যালার্জির সৃষ্টি করে।

ক্ষতিকর রাসায়নিক পদার্থ কিংবা সুগন্ধযুক্ত লিপবাম ব্যবহার না করে গন্ধহীন লিপবাম ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছেন জ্যাকব। তবে সেটাতে এসপিএফ থাকতে হবে। নাহলে রোদে গেলে সূর্যের অতিবেগুনী রশ্মির কারণে ঠোঁটে কালচে ভাব চলে আসবে। এছাড়াও সাধারণ পেট্রোলিয়াম জেলি কিংবা গ্লিসারিনও ব্যবহার করা যায়। আর যদি তেল ব্যবহার করা হয় তাহলে সূর্যের আলোতে যাওয়া উচিত হবে না। রাতে ঘুমানোর সময় ঠোঁটে তেল ব্যবহার করা যেতে পারে। সেই সঙ্গে প্রচুর পানি পান করতে হবে। এতে ঠোঁট অতিরিক্ত শুকাবে না। লাইভ সাইন্স