চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

লরিতে ৩৯ অভিবাসীকে হত্যার দায় স্বীকার মরিস রবিনসনের

অবৈধ অভিবাসনের সময় যুক্তরাজ্যের এসেক্সে একটি লরির কন্টেইনারে ৩৯ জন ভিয়েতনামী অভিবাসীর মৃত্যুর জন্য অভিযুক্ত লরি চালক মরিস রবিনসন (২৫) তার দায় স্বীকার করেছেন।

সোমবার কারাগারে ভিডিও বার্তার মাধ্যমে তাকে আদালতে শুনানিতে হাজির করা হলে তিনি তার সকল দায় স্বীকার করেন এবং নিজেকে ব্রিটিশ নাগরিক দাবি করেন। একই সাথে রবিনসন আন্তর্জাতিক চোরালাচালনকারীদের সঙ্গে সম্পৃক্ততার কথাও স্বীকার করেছেন।

যুক্তরাজ্যের আদালত তার বিরুদ্ধে নরহত্যার অভিযোগ এনেছেন।

ডেইলিমেইল বলছে, গত ২৩ অক্টোবর মধ্যরাতে ওয়াটারগ্লেড ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্ক এলাকায় একটি লরির কন্টেইনার থেকে ৩৮ জন প্রাপ্তবয়স্ক ও একজন কিশোর বয়সীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। কন্টেইনারের ভেতর তাপমাত্রা মাইনাস ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিলো। ফলে তাদের মৃত্যু হয়। লরির মূল অংশ নর্দার্ন আয়ারল্যান্ড থেকে এসে পারফ্লিট থেকে কন্টেইনারটি তুলেছিল।

লরির কন্টেইনার থেকে মৃত অবস্থায় পাওয়াদের মধ্যে ছিলেন ৮ জন মহিলা এবং ৩০ জন পুরুষ এবং ১ জন ১৫ বছর বয়সী শিশু।

বিজ্ঞাপন

ভুক্তভোগীদের প্রথম চীনা নাগরিক মনে করা হলেও পরে ভিয়েতনামের বিভিন্ন প্রদেশ থেকে আগত বলে  নিশ্চিত করা হয়েছিলো।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো জানায়, রবিনসন আবেদনের শুনানির জন্য কারাগার থেকে ভিডিও লিংকে হাজির হন। তিনি হত্যার দায় স্বীকার করেছেন।

ডেইলিমেইল জানায়, শুনানি চলার সময় তিনি ১ মে ২০১৮ থেকে ২৪ অক্টোবর ২০১৯ সময়ের মধ্যে অবৈধ অভিবাসনে সহায়তা করার কথা স্বীকার করেছেন।

অভিযোগে বলা হয়েছে যে, তিনি অন্যদের সাথে এমন একটি ধারাবাহিক কাজ করার পরিকল্পনা করেছিলেন, যা বিভিন্ন ব্যক্তির দ্বারা অভিবাসন আইন লঙ্ঘন করে।

শেয়ার করুন: