চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

লক্ষ্যমাত্রা ছাড়ালো বেপজার বিনিয়োগ, রপ্তানি ও কর্মসংস্থান

২০১৮-১৯ অর্থবছরে বাংলাদেশ রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ এলাকা কর্তৃপক্ষের (বেপজা) ইপিজেডগুলোতে বিনিয়োগ, রপ্তানি ও কর্মসংস্থান লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে গেছে।

এ সময়ে ৮টি ইপিজেডে চালু শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলোতে বিনিয়োগ হয়েছে ৩৩ কোটি ৩৩ লাখ ডলার। রপ্তানি হয়েছে ৭৫২ কোটি ৪১ লাখ ডলারের পণ্য এবং কর্মসংস্থান তৈরি হয়েছে ১৯ হাজার ৫৪৮ জন বাংলাদেশি নাগরিকের।

বেপজা এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মধ্যে সম্পাদিত বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি অনুসারে ৩০ কোটি ডলার বিনিয়োগ, ৬৫০ কোটি ডলার রপ্তানি আয় এবং ১৫ হাজার বাংলাদেশি নাগরিকের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টির লক্ষ্যমাত্রা ছিল।

বিনিয়োগ কত
বর্তমানে বেপজার আটটি ইপিজেডে চালু এন্টারপ্রাইজগুলোতে ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ৩০ কোটি ডলারের বিনিয়োগ লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে ৩৩ কোটি ৮৩ লাখ ডলার প্রকৃত বিনিয়োগ অর্জন করেছে। এর মধ্যে চট্টগ্রাম ইপিজেডে ৭ কোটি ৫৬ লাখ ডলার, ঢাকা ইপিজেডে ৭ কোটি ৬১ লাখ ডলার, মোংলা ইপিজেডে ১ কোটি ১ লাখ ডলার, কুমিল্লা ইপিজেডে ৩ কোটি ১০ লাখ ডলার, উত্তরা ইপিজেডে ৩ কোটি ১০ লাখ ডলার, ঈশ্বরদী ইপিজেডে ৮১ লাখ ডলার, আদমজী ইপিজেডে ৫ কোটি ২ লাখ ডলার এবং কর্ণফুলী ইপিজেডে ৫ কোটি ৯ লাখ ডলার আয় করেছে। চলতি বছরের জুন পর্যন্ত বেপজার ৮টি ইপিজেডে শুরু থেকে এখন পর্যন্ত মোট বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৫০১ কোটি ৪২ লাখ ডলার।

বিজ্ঞাপন

রপ্তানি আয়ের পরিমাণ
২০১৮-১৯ অর্থবছরে বেপজা ৬৫০ কোটি ডলারের লক্ষ্যমাত্রা অতিক্রম করে অতিরিক্ত ১০২ কোটি ৪১ লাখ ডলারের পণ্য রপ্তানি করেছে। এ সময়ে রপ্তানি আয় হয়েছে ৭৫২ কোটি ৪১ লাখ ডলার। এর মধ্যে চট্টগ্রাম ইপিজেডে ২৩৯ কোটি ১৬ লাখ ডলার, ঢাকা ইপিজেডে ২২০ কোটি ৬ লাখ ডলার, মোংলা ইপিজেডে ৮ কোটি ৯৪ লাখ ডলার, কুমিল্লা ইপিজেডে ৪৯ কোটি ৭ লাখ ডলার, উত্তরা ইপিজেডে ২৯ কোটি ৩৭ লাখ ডলার, ঈশ্বরদী ইপিজেডে ১৫ কোটি ২ লাখ ডলার,আদমজী ইপিজেডে ৮২ কোটি ৬৪ লাখ ডলার এবং কর্ণফুলী ইপিজেড ১০৭ কোটি ৫৫ লাখ ডলার। আটটি ইপিজেডে থেকে ক্রমপুঞ্জিভূত রপ্তানি আয় ৭৪ হাজার ৮ কোটি ৯২ লাখ ডলার।

কর্মসংস্থান সৃষ্টি
বেপজার এন্টারপ্রাইজগুলোতে ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ১৫ হাজার বাংলাদেশি নাগরিকের কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে ১৯ হাজার ৫৪৮ জনের নতুন কর্মসংস্থান হয়েছে।

এর মধ্যে চট্টগ্রাম ইপিজেডে ২০৬৭ জন, ঢাকা ইপিজেডে ১৪৮২ জন, মোংলা ইপিজেডে ১৫৬৫, কুমিল্লা ইপিজেডে ১৮২০ জন, উত্তরা ইপিজেডে ১৯৪১ জন, ঈশ্বরদী ইপিজেডে ১৩৫৭ জন, আদমজী ইপিজেডে ৩৯৮৮ জন এবং কর্ণফুলী ইপিজেডে ৫২৬২ জনের নতুন কর্মসংস্থান হয়েছে।

জুন ২০১৯ পর্যন্ত আটটি ইপিজেডে মোট ৫ লাখ ২১ হাজার ৫৬১ জন বাংলাদেশি নাগরিক কর্মরত রয়েছেন।

বিজ্ঞাপন