চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রোহিতের দেখানো পথের উল্টো হাঁটলো ভারত

শুরুর সেশনে তিন উইকেট, শেষেও তাই। আর ‘শেষ ভালো যার সব ভালো তার!’ ইংল্যান্ড এক হিসেবে এই প্রবাদ মেনে খুশি থাকতে পারে আবার নাও পারে। কারণ গলার কাঁটা হয়ে ঝুলে আছেন রিশভ পান্ট আবার আসল ‘ডেঞ্জার’ রোহিত শর্মাকেও বিদায় করা গেছে। প্রায় সারাদিন এই রোহিত যা করে গেছেন, পুরোদিন টিকে থাকলে কপালে সত্যিকারের শনিই হয়তো ভর করতো ইংলিশদের!

চেন্নাইয়ে দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিনের প্রথম সেশনেই বিরাট কোহলি, চেতেশ্বর পূজারার মত ব্যাটসম্যানদের হারিয়েছিলো ভারত। টপ অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যানকে হারানো স্বাগতিকরা তখন শত রানও ছুঁতে পারেনি। সেই অবস্থা থেকে দিন শেষে যে ৩০০ করতে পারলো কোহলির দল তার কৃতিত্বের প্রায় পুরোটা প্রাপ্য ওপেনার রোহিত শর্মার, ১৬৩ রানের জুটিতে যোগ্য সঙ্গ দেওয়ায় সাধুবাদ পাবেন আজিঙ্কা রাহানেও। তবে শেষ সেশনে তিন উইকেট হারিয়ে সংগ্রহটাকে বড় করতে পারেনি ভারত।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

চেন্নাইয়ের প্রথম টেস্টের দল থেকে দ্বিতীয় টেস্টে পেসারযুগলকেই পাল্টে ফেলে ইংল্যান্ড। অভিজ্ঞা জেমস অ্যান্ডারসনের জায়গায় স্টুয়ার্ট ব্রড আর জফরা আর্চারের বদলি দলে ঢোকেন আরেক পেসার ওলি স্টোন। শুভমন গিলকে শূন্য রানে ফিরিয়ে স্টোন নিজের কার্যকারিতা প্রমাণ করেছেন সুন্দর ভাবে, তবে মাঝখানে আসল ফাটলতা ধরিয়েছেন স্পিনার অলরাউন্ডার মঈন আলি।

দিনের দ্বিতীয় ওভারেই শুভমনকে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেছেন ডানহাতি পেসার স্টোন, ভারতের রানের খাতায় তখন একটা গোল বৃত্তাকার শূন্য। যদিও সেই ধাক্কাকে একদমই বুঝতে দেননি রোহিত শর্মা।

রোহিত যতক্ষণ ছিলেন একবারও মনে হয়নি টেস্ট খেলছে ভারত। দ্বিতীয় উইকেটে ৮৫ রানের জুটিতে পূজারার অবদান সেখানে নিজস্ব ঢংয়ে ২১, বাকিটা রোহিতের। ৪.৫০ রানরেটে প্রথম ২০ ওভারেই এই রান তোলার কারিগর ‘দ্য হিটম্যান’। মাত্র ৪৭ বলেই পেয়েছেন নিজের অর্ধশতকের দেখা।

বিজ্ঞাপন

রান তোলায় রোহিতের মনোযোগে উইকেটে ইংলিশ বোলারদের আসল পরীক্ষা নিচ্ছিলেন পূজারা। স্লিপে তাকে বেন স্টোকসের ক্যাচ বানিয়ে বিপদ হয়ে উঠার সুযোগ দেননি অফস্পিনার জ্যাক লিচ।

পরের ওভারে দলকে বিপদে রেখে শূন্য রানেই ফিরে যান অধিনায়ক বিরাট কোহলি। মঈন আলির বল তার ব্যাট-প্যাড ফাঁকি দিয়ে আঘাত করে উইকেটে। মাত্র ১ রানের ব্যবধানে দুই উইকেট নেই ভারতের।

দলের বিপদেও রানের গাড়ি থামাননি রোহিত। তাকে রান করতে দিয়ে অন্য প্রান্তটা সামলে রেখেছিলেন রাহানে। প্রথম ফিফটির চাইতে দ্বিতীয়টি খানিকটা শ্লথ হলেও ১৩০ বলে টেস্টে নিজের সপ্তম সেঞ্চুরি তুলে নেন রোহিত।

রাহানেকে নিয়ে দ্বিতীয় সেশটা নিরাপদেই পার করিয়েছেন রোহিত। তৃতীয় সেশনটাও হয়তো নিরাপদে শেষ করতে পারতেন, তবে বেশি আগ্রাসী হতে গিয়ে জ্যাক লিচকে উড়িয়ে সীমানা ছাড়া করতে গিয়েছিলেন, তাতেই থেমে গেলো ২৩১ বলে ১৮ চার ও ২ ছক্কায় সাজানো তার ১৬১ রানের ইনিংসটি। ভারতের রান তখন ২৪৮। এক রান পরে ফিরে যান রাহানেও। মঈন আলিকে সুইপ করতে গিয়ে ৬৭ রানে বোল্ড হন ডানহাতি ব্যাটসম্যান।

দিনের শেষভাগে রবিচন্দ্রন অশ্বিনকেও হারিয়েছে ভারত। ৩৩ রানে অপরাজিত দ্বিতীয় দিনের শুরু করবেন রিশভ পান্ট।

বিজ্ঞাপন