চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাহাড়ে অস্ত্র তৈরির কারখানার সন্ধান

র‌্যাবের সঙ্গে ৩ ঘণ্টাব্যাপী বন্দুকযুদ্ধ, ৩ কারিগর আটক

কক্সবাজারের উখিয়ায় কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের একটি পাহাড়ে অস্ত্র তৈরির কারখানার সন্ধান পেয়েছে র‌্যাব-১৫। ওই কারখানাটিতে অভিযানের সময় রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের সঙ্গে র‌্যাবের চার ঘণ্টাব্যাপী বন্দুকযুদ্ধ চলে। সেখান থেকে আটক করা হয় অস্ত্র তৈরির তিন রোহিঙ্গা কারিগরকে।

ভোরে কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের এক্সটেনশন ফোরের পাশের একটি পাহাড়ে অভিযান চালিয়ে কারখানা থেকে ১০টি দেশিয় অস্ত্র, অস্ত্র তৈরীর সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। এসময়  অস্ত্র কারিগর কুতুপালং সি ব্লকের বাইতুল্লাহ (১৯), তার ভাই হাবিব উল্লাহ (৩২) ও একই ক্যাম্পের জি ব্লকের মোহাম্মদ হাছুন (২৪) কে আটক করা হয়।

বিজ্ঞাপন

র‍্যাব-১৫ অধিনায়ক লে. কর্ণেল খায়েরুল ইসলাম জানান, খবর ছিল দীর্ঘদিন ধরে একটি চক্র এ ক্যাম্পের গহীন বনে কারখানা তৈরি করে অস্ত্র বানিয়ে আসছিল। আর এই কারখানা থেকে  রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের কাছে অস্ত্র সরবরাহ করা হচ্ছিল। এমন তথ্যের উপর ভিত্তি করে গতকাল মধ্যরাত থেকে আজ ভোর পর্যন্ত উখিয়ার কুতুপালং ক্যাম্পের এক্সটেনশন ফোরে গহীন পাহাড়ে অভিযান চালায় র‌্যাব।

তিনি বলেন, তথ্য অনুযায়ী কারখানাটি শনাক্ত করে সেখানে অভিযান চালাতেই র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা। চার ঘণ্টার বেশি সময় গুলিবিনিময়ের পর কারখানাটি নিয়ন্ত্রণে নেয়া হয়। পরে সেখান থেকে চিহ্নিত হয় অস্ত্র কারখানা, জব্দ করা হয় ১০টি অস্ত্র, বিপুল পরিমাণ অস্ত্র তৈরীর সরঞ্জাম।

লে. কর্ণেল খায়েরুল ইসলাম জানান, গোলাগুলির ফাঁকে বেশ কয়েকজন সন্ত্রাসী পাহাড়ের দিকে পালিয়ে যায়। আটকদের থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন