চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তরে নিরাপত্তার দায়িত্বে র‍্যাব

কক্সবাজার থেকে রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তরে নিরাপত্তার দায়িত্বে কাজ করছে এলিট ফোর্স র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ন (র‍্যাব)।

চ্যানেল আই অনলাইনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্নেল আশিক বিল্লাহ।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

লেফটেন্যান্ট কর্নেল আশিক বলেন, জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত হওয়া মিয়ানমারের নাগরিকদের কক্সবাজার থেকে ভাসানচরে স্থানান্তরের নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করছে র‍্যাব-৭ ও র‍্যাব-১৫।

এরআগে কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে রোহিঙ্গাদের বহনকারী ৮টি বাসের একটি দল ভাসানচরের উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছে। বহনকারী বাসটিগুলো তাদের চট্টগ্রামের নৌবাহিনীর জেটিতে পৌঁছে দেবে। সেখান থেকে নৌবাহিনীর জাহাজে পৌঁছে যাবে ভাসানচর।

বিজ্ঞাপন

এরমধ্যে দিয়ে শুরু হলো মিয়ানমার থেকে অভিবাসী হয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া ১ লাখ রোহিঙ্গাকে অস্থায়ীভাবে ভাসানচরে স্থানান্তরে সরকারের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম। ওই ৮ বাসে ঠিক কতজন রোহিঙ্গা রয়েছেন, তা এখন পর্যন্ত নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

সরকারের পক্ষ থেকে রোহিঙ্গাদের স্থানান্তরে আগ থেকে নৌবাহিনীর ১৪টি জাহাজ প্রস্তুত রাখার কথা বলা হয়েছে।

জানা গেছে: সর্বশেষ ২৯ নভেম্বর পর্যন্ত সরকার এবং বিভিন্ন সহযোগিতা সংস্থার পক্ষ থেকে ৬৬ টন খাদ্য মজুদ রাখা হয়েছে ভাসানচরে। প্রথম দুইমাস তাদের রান্না করা খাবার পরিবেশন করা হবে। পরবর্তীতে তারা নিজস্ব ব্যবস্থায় রান্না করে খেতে পারবে।

সরকারের পক্ষ থেকে চরটিতে রোহিঙ্গাদের জন্য বাসস্থানের উপযোগী অবকাঠামো, প্রশাসনিক অবকাঠামো, হাসপাতাল, স্কুল, মসজিদসহ সকল প্রকার সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করা হয়েছে।