চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রোবট অলিম্পিয়াডে যোগ দিতে ফিলিপিন্স যাচ্ছে বাংলাদেশ দল

১৫ থেকে ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ ফিলিপিন্সের ম্যানিলাতে অনুষ্ঠেয় আন্তর্জাতিক রোবট অলিম্পিয়াড (আইআরও)-এর ২০তম আসরে যোগ দিতে বৃহস্পতিবার রাতে রওনা দিচ্ছে বাংলাদেশের ৮ খুদে শিক্ষার্থী।

সিলেটের জালালাবাদ ক্যান্টনমেন্ট ইংলিশ স্কুলের রাফীহাথ সালেহ চৌধুরী, ঢাকার সানবীমস স্কুলের নাশীতাত যাইনাহ রহমান, ঢাকা আগা খান স্কুলের যাহরা মাহজারীন পূর্বালী, ঢাকার ম্যাপল লিফ ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের মো. মেহের মাহমুদ, চিটাগাং গ্রামার স্কুল ঢাকার কাজী মোস্তাহিদ লাবিব, চিটাগাং গ্রামার স্কুল ঢাকার তাফসির তাহরীম, লালবাগ সরকারী মডেল স্কুল এন্ড কলেজের মো. খায়রুল ইসলাম এবং ঢাকা কলেজের সানি জুবায়ের রোবট অলিম্পিয়াডের দু’টি ক্যাটাগরিতে ২৩টি দেশের প্রায় ৮০০ প্রতিযোগীর সঙ্গে লড়াই করবে।

বাংলাদেশ দলের অংশগ্রহণ নিয়ে বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে বাংলাদেশ রোবট অলিম্পিয়াডের যৌথ আয়োজক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোবটিক্স অ্যান্ড মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ ও বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্ক (বিডিওএসএন)।

বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত এ সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশের খুদে প্রতিনিধিদের পরিচয় করিয়ে দেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোবটিক্স অ্যান্ড মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারপার্সন ও বিডিওএসএনের সহ-সভাপতি ড. লাফিফা জামাল।

তিনি জানান, সেপ্টেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে অক্টোবর মাসের ২৬ তারিখ পর্যন্ত আঞ্চলিক কর্মশালা ও ধারাবাহিক প্রশিক্ষণের পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঐতিহ্যবাহী কার্জন হলে অনুষ্ঠিত হয় দেশের প্রথম রোবট অলিম্পিয়াডের জাতীয় পর্ব। সারাদিন ব্যাপী এ অলিম্পিয়াডে ৭ থেকে ১২ এবং ১৩ থেকে ১৮ বছর বয়সী শিক্ষার্থীরা দু’টি ক্যাটাগরিতে মিশন চ্যালেঞ্জ, ক্রিয়েটিভ ক্যাটাগরি, রোবট ইন মুভি ও রোবটিক বুদ্ধি প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়।

Advertisement

সেখান থেকে নির্বাচিতদের ক্যাম্পের মাধ্যমে ধারাবাহিক প্রশিক্ষণ ও বাছাই-এর পর ৮ সদস্যের বাংলাদেশ দল গঠন করা হয়েছে।আন্তর্জাতিক রোবট অলিম্পিয়াড-ফিলিপিন্স-বাংলাদেশ দল

সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ রোবট অলিম্পিয়াডের সমন্বয়ক রেদওয়ান ফেরদৌস ২০১৭ সালের অভিজ্ঞতা তুলে ধরে জানান, অন্যান্য দেশের ৭-১০ বছরের শিশুরা এরই মধ্যে নিজেদের কুশলী করে গড়ে তুলছে।

আয়োজনের অন্যতম পৃষ্ঠপোষক জনতা ব্যাংকের উপ-মহাব্যবস্থাপক মফিজুল ইসলাম সবাইকে শুভেচ্ছা জানান।

দেশের আইটি শিল্পের পক্ষ থেকে প্রতিযোগী শিশুদের শুভেচ্ছা জানাতে উপস্থিত ছিলেন দেশের অন্যতম শীর্ষ সফটওয়্যার প্রতিষ্ঠান লিডস সফটের প্রধান পরিচালনা কর্মকর্তা রানা সোহেল। তিনি জানান, দেশে এরই মধ্যে রোবটিক্স ও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা নিয়ে কাজ হচ্ছে।

তিনি আশা করেন, রোবট অলিম্পিয়াডের মাধ্যমে এ ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের দক্ষতা বৃদ্ধি পাবার পাশাপাশি দেশের সক্ষমতাও ফুটে উঠবে।

সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন প্রথম আলোর যুব কর্মসূচি সমন্বয়ক মুনির হাসান ও বাংলাদেশের রোবট নিনো’র প্রতিষ্ঠান সিরেনার প্রধান নির্বাহী প্রকৌশলী মুস্তাফা হাসান।