চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রোনালদোর ২৩ মাসের জেল

জরিমানা ১৯ মিলিয়ন ইউরো

আদালতের মূল ফটক দিয়ে বের হওয়া মাত্রই একের পর এক প্রশ্ন ছুঁড়ে দিলেন সংবাদকর্মীরা। বান্ধবী জর্জিনা রদ্রিগেজকে নিয়ে সোজা হেঁটে তিনি গাড়িতে উঠে গেলেন। একাধিক প্রশ্নের জবাবে মুখে এক চিলতে হাসি নিয়ে কেবল বুড়ো আঙ্গুল তুলে দেখালেন ‘সব ঠিক আছে’। দেখে বোঝার উপায়ও থাকল না ২৩ মাসের জেল ও বিশাল অঙ্কের জরিমানা মাথায় নিয়ে স্পেনের আদালত থেকে বের হয়ে আসলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো!

রিয়াল মাদ্রিদে থাকতে ১৪.৮ মিলিয়ন ইউরো কর ফাঁকির মামলায় রোনালদোকে ২৩ মাসের জেল কারাদণ্ড দিয়েছেন মাদ্রিদের একটি আদালত। জরিমানা হিসেবে ১৯ মিলিয়ন ইউরো গুণতে হবে সাবেক রিয়াল ফরোয়ার্ডকে।

তবে ২৩ মাসের জেল হওয়ায় গারদের ভেতর যেতে হচ্ছে না পর্তুগিজ মহাতারকাকে। স্পেনের আইন অনুযায়ী ফৌজদারী মামলা ছাড়া প্রথমবার দুই বছরের নিচে কারাদণ্ড হলে কাউকে জেল সাজা খাটতে হয় না। একইভাবে কারাদণ্ড পেয়েও জেল এড়িয়ে যেতে পেরেছেন সিআর সেভেনের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী লিওনেল মেসি!

২০১১ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত নিজের ইমেজস্বত্ব ভাঙিয়ে ১৪.৮ মিলিয়ন ইউরো ফাঁকি দিয়েছেন রোনালদো; এমন অভিযোগে বর্তমান জুভেন্টাস ফরোয়ার্ডের নামে মামলা দায়ের করেন স্পেনের কৌসুলিরা।

ইতালিতে থাকায় ভিডিও কলের মাধ্যমে শুনানিতে হাজির হতে চেয়েছিলেন রোনালদো। কিন্তু সেই আবেদন খারিজ করে দেন আদালত। তাকে সশরীরে হাজিরা দিতে নির্দেশ দেয়া হয়। রোনালদো চেয়েছিলেন গ্যারেজ দিয়ে আদালতে হাজির হতে। কিন্তু আদালত তাকে মূল ফটক ও সংবাদমাধ্যমের সামনে দিয়েই উপস্থিত হওয়ার আদেশ দেন। অগত্যা বান্ধবীকে সঙ্গে নিয়ে মঙ্গলবার শুনানির জন্য মাদ্রিদে আসেন পাঁচবারের বিশ্বসেরা ফুটবলার।

কেবল রোনালদোই নন, একই দিনে প্রায় একই মামলায় মাদ্রিদ আদালতে আসেন রিয়ালের সাবেক ফুটবলার জাভি আলোনসো। অভিযোগ প্রমাণিত হলে পাঁচবছর জেল হতে পারে স্পেনের হয়ে বিশ্বকাপ জেতা সাবেক এ মিডফিল্ডারের!