চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রোনালদোর দাওয়াত পেলে ‘ডিনারে’ রাজি মেসি

উয়েফার বর্ষসেরা পুরষ্কারের রাতে রীতিমতো আক্ষেপ করেছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। খেলার মাঠে বহুবার দেখা হলেও খাবারের টেবিলে কখনো লিওনেল মেসির সঙ্গে দেখা হয়নি তার! চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর এই আক্ষেপকে গুরুত্বের সঙ্গেই নিয়েছেন বার্সেলোনা মহাতারকা।

স্প্যানিশ পত্রিকা স্পোর্তের সঙ্গে সাক্ষাতকারে মেসি জানিয়েছেন, খুব ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক না থাকলেও জুভেন্টাস মহাতারকার সঙ্গে নৈশভোজে বসতে আপত্তি নেই তার।

বিজ্ঞাপন

দুজনে মুখে স্বীকার না করলেও ফুটবল ইতিহাসে সর্বকালের অন্যতম সেরা দ্বৈরথ আলাদা করে দিয়েছে মেসি ও রোনালদোকে। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দুই ক্লাব বার্সেলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদে খেলায় সেটা উপভোগ্য হয়েছে আরও। অস্বীকার করলেও পারতপক্ষে একে অন্যের ছায়া মাড়াতেন না।

মাঠের বাইরে দুজনের বাণিজ্যিক চুক্তিও ছিল আলাদা আলাদা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে। ব্যক্তিগত অর্জনে শোকেস ভারী হয়েছে রীতিমতো পাল্লা দিয়ে। সমান পাঁচটি করে ব্যালন ডি’অরের ট্রফি আছে দুজনের কাছে।

বিজ্ঞাপন

তবে ২০১৮ সালে রিয়াল ছেড়ে রোনালদোর ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাসে পাড়ি জমানোতে বরফ কিছুটা গলতে শুরু করে। মেসি বার্সাতে তার মতো করে খেলেও প্রকাশ্যেই বলেছেন চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর অভাবটা তাকে পোড়ায়। নিজেদের খেলার বাইরে চোখ রাখেন জুভেন্টাস ম্যাচের দিকে।

রোনালদোও সমানভাবে মেসিকে ‘মিস’ করে যাচ্ছেন তার প্রমাণ রেখেছেন উয়েফার অ্যাওয়ার্ড নাইটে। দুজন বসেছেন পাশাপাশি। আর্জেন্টাইন মহাতারকাকে দেখিয়ে পর্তুগিজ মহাতারকা বলেছেন, ‘ওর (মেসি) সঙ্গে কোনোদিনও ডিনারে যাওয়া হলো না! সম্ভব হলে একদিন বসতে চাই।’

সেই আমন্ত্রণের জবাবে স্পোর্তকে মেসি বলেছেন, ‘আমার এতে কোনো সমস্যা নেই। তার সঙ্গে আমার কোনোদিনই কোনো সমস্যা ছিল না।’

‘আমরা হয়তো বন্ধু নই, কারণ আমরা কোনোদিনও একসঙ্গে ড্রেসিংরুম ভাগাভাগি করিনি। তবে তার সঙ্গে পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানগুলোতে আমার প্রায় দেখা হয় এবং তখন কোনো সমস্যাও হয়নি। আসলে সবশেষ অনুষ্ঠানটিতে আমরা অনেকটা সময় কথা বলেছি।’

যেতে রাজি হলেও রোনালদোর সঙ্গে ডিনারে বসা সম্ভব হবে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ আছে মেসির, ‘আমি জানি না আমাদের একসঙ্গে ডিনারে বসা সম্ভব হবে কিনা, কারণ আমাদের জীবনধারা সম্পূর্ণ আলাদা। আমাদের নিজস্ব জীবন আছে, আছে আলাদা প্রতিশ্রুতিও। তবে হ্যাঁ, সম্ভব হলে দাওয়াতে অবশ্যই আমি রাজি।’

Bellow Post-Green View