চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রোনালদিনহোকে নিয়ে প্যারাগুয়েতে আইনজীবীর দর-কষাকষি

ব্রাজিলের বিশ্বকাপজয়ী তারকা রোনালদিনহো ও তার ভাইকে মুক্ত করতে প্যারাগুয়ে সরকারি কৌসুলিদের সঙ্গে দর-কষাকষি শুরু করেছে তাদের আইনজীবীরা। জাল পাসপোর্ট ও ভেজাল কাগজ নিয়ে প্যারাগুয়েতে প্রবেশের দায়ে গত মার্চ থেকে কারাগারে আছেন বার্সেলোনার সাবেক কিংবদন্তি।

মার্চে গ্রেপ্তারের ৩২ দিন পর রোনালদিনহো ও তার ভাই রবের্তো অ্যাসিসকে উচ্চ নিরাপত্তাবিশিষ্ট কারাগারে পাঠানো হয়। এখন পর্যন্ত সেখানেই আছেন দুজনে। তার আগে প্যারাগুয়ের রাজধানী আসুনশিওনের এক পাঁচ তারকা হোটেলে নজরবন্দী ছিলেন তারা। সেখানে খরচ বাবদ দুজনকে জনপ্রতি ৮ লাখ ডলার করে জামিনও বেধে দিয়েছেন প্যারাগুয়ে আদালত।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

গত সপ্তাহ থেকে রোনালদিনহোদের জামিনের খরচের পরিমাণ কমানোর জন্য চেষ্টা করে চলেছেন আইনজীবীরা, এমন জানিয়েছে ইএসপিএন এফসি। সূত্রের বরাতে তারা লিখেছে, মামলার ৯০ শতাংশ অভিযোগ তুলে নেয়ার বন্দোবস্ত এরইমধ্যে হয়ে গেছে।

দর-কষাকষির মাধ্যমে জাল পাসপোর্টে প্যারাগুয়েতে প্রবেশ ও আইন ভাঙার জন্য জরিমানাকে ২০ ও ৫০ হাজার ডলারে নামিয়ে আনার চেষ্টা চলছে। অবশ্য অতীতে রোনালদিনহোর ভাইয়ের প্যারাগুয়েতে অপরাধের রেকর্ড থাকলেও ২০০৫ সালে ব্যালন ডি’অর জয়ী কিংবদন্তি তা থেকে মুক্ত। রবের্তোকে নিয়েই যা একটু সমস্যা হচ্ছে আইনজীবীদের।

চুক্তির শর্ত অনুযায়ী ব্রাজিলে ফিরতে পারলেও দুই ভাইকেই প্যারাগুয়ে আদালত থেকে বেধে দেয়া নিয়মে চলতে হবে। চুক্তি মেনে চললে দেরিতে হলেও সাবেক ক্লাব বার্সেলোনা ভ্রমণে যেতে পারবেন বার্সার হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগজয়ী কিংবদন্তি।