চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রেস্টুরেন্টে খেলেই ৫০% ছাড়

করোনাভাইরাসে দীর্ঘদিন বন্ধ থাকায় ব্রিটেনের ক্যাফে, পাব এবং রেস্টুরেন্টগুলো মারাত্মক ক্ষতির মুখে পড়েছে। এপ্রিল মাস থেকে প্রায় ৮০ শতাংশ রেস্টুরেন্ট ও ক্যাফে বন্ধ। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এই খাতের সঙ্গে জড়িত অসংখ্য মানুষ।

মানুষ বাইরে খাওয়া বন্ধ করে দেওয়ায় এমন ক্ষতির মুখোমুখি হতে হয় যুক্তরাজ্যের অন্যতম এই অর্থনৈতিক খাতকে।

বিজ্ঞাপন

কঠিন এই পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে ব্রিটিশ সরকার নতুন ও ব্যতিক্রমধর্মী একটি উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। ব্রিটিশ জনগণকে আগের মত রেস্টুরেন্ট, ক্যাফে অভিমুখী করতে সরকারের ব্যতিক্রমী পরিকল্পনার কথা কিছুদিন আগে পার্লামন্টে উপস্থাপন করেন চ্যান্সেলর (অর্থমন্ত্রী) ঋষি সুনাক।

বিজ্ঞাপন

তিনি ঘোষণা করেছেন, আগামী আগস্ট মাসের প্রতি সোমবার থেকে বুধবার ক্যাফে, রেস্তোরাঁ ও পাবে অর্ধেক মূল্যে খাবার পাবে কাস্টমাররা। এই খাবারে জনপ্রতি ১০ পাউন্ড পর্যন্ত দেবে সরকার। এই সুযোগ থাকবে শিশুদের বেলায়ও। তবে খাবারের বেলায় এই সুবিধা থাকলেও অ্যালকোহল বা মদ পানের বেলায় তা পাবেন না কাস্টমাররা।

বিবিসি বলছে, খাবারে দেওয়া এই হ্রাসকৃত মূল্য থাকবে আনলিমিটেড। অর্থাৎ পুরো অগাস্ট মাসব্যাপী জনগণ যতোবার খুশি, ততোবার বাইরে খাবার বেলায় এই সুযোগ পাবেন। এই উদ্যোগ চলবে ৩ আগস্ট থেকে ৩১ আগস্ট পযন্ত।

বিজ্ঞাপন

এই খাবার সংগ্রহে কোনো ভাউচার দেখাতে হবে না। এই প্রকল্পের আওতায় কীভাবে খাবারের মূল্য নির্ধারণ করা হবে তার একটা উদাহরণ দেখিয়েছে বিবিসি।

যেমন, একটি ৩ পাউন্ড দামের কফির জন্য এখন গুণতে হবে অর্ধেক বা ১.৫০ পাউন্ড।

যেসস পাব, রেস্টুরেন্ট বা ক্যাফে থেকে এসব ছাড় পাওয়া যাবে তার একটা তালিকাও করা হয়েছে। যেমন- বার্গার কিং, ম্যাকডোনাল্ডস, নান্দোস, ওয়েদারস্পুন, পিজ্জা হাঁট, টোবি ক্যারি, কেএফসি, সাবওয়ে, ক্যাফে কনসার্টো,কোস্টা কফি, দিশাম, গাউচো প্রভৃতি।

সরকারি পরিসখংখ্যান মতে, ব্রিটেনের প্রতিটি পরিবার সপ্তাহে গড়ে ২০ পাউণ্ড মূল্যের বাইরের খাবার খেয়ে থাকে। সেই হিসাবে, একটি পরিবারের ৪ সদস্যের যদি বাইরের খাবার বিল ৮০ পাউন্ড হয়, তবে তারা এখন তা পাবেন অর্ধেক হ্রাসকৃত মূল্য ৪০ পাউন্ডে।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ইউরোপীয় দেশগুলোর মধ্যে ব্রিটেন অন্যতম শীর্ষ দেশ। দেশটিতে মোট করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লক্ষাধিক মানুষ এবং মৃত্যু হয়েছে ৪৫ হাজার ৭৫৯ জন। মৃতের সংখ্যায়  ইউরোপীয় দেশগুলোর মধ্যে শীর্ষে ব্রিটেন।