চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রেফারি নিয়ে মুখ খুললেই ৬ মাস নিষিদ্ধ!

টটেনহ্যাম হটস্পারের বিপক্ষে ৩-০ গোলে হেরে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার দৌড়ে কিছুটা ধাক্কা খেয়েছে আর্সেনাল। ম্যাচে ৭ মিনিটের ব্যবধানে দুই হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হয়েছে তাদের রক্ষণসেনানী রব হোল্ডিংকে। পরে ১০ জনের গানারদের বাগে পেয়ে আরও ২ গোল দিয়ে একতরফা জয় তুলেছে হটস্পাররা। কঠিন ম্যাচে রেফারি পল টিয়েরনের কিছু সিদ্ধান্তে বেশ চটেছেন আর্সেনাল কোচ মিকেল আর্তেতা।

‘আমার মাথায় যা ঘুরপাক খাচ্ছে, যদি বলি, তাহলে তিনি নিশ্চয় আমাকে ৬ মাস নিষিদ্ধ করবেন। মিথ্যা বলতে পছন্দ করি না। মুখ খুললে আমাকে বরখাস্ত করা হবে। আমার ফুটবলারদের নিয়ে আমি গর্বিত। রেফারি পারলে তার সিদ্ধান্তের ব্যাখ্যা দিক। এটা তার সিদ্ধান্ত, একটি সুন্দর খেলা সে ধ্বংস করেছে।’

Reneta June

ম্যাচের ৩৩ মিনিটেই ১০ জনে পরিণত হয় আর্তেতার দল। হটস্পারদের মাঠে খেলা হওয়ায় এমনিতেই জয় কঠিন ছিল আর্সেনালের। এরপর পেছন থেকে সন হিউং-মিনকে বাধা দেয়ায় দ্বিতীয় হলুদ কার্ডে হোল্ডিংকে হারানো। পরে আর প্রতিরোধই গড়তে পারেনি আর্তেতার দল।

বিজ্ঞাপন

‘যে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে, তা পরিবর্তন করতে পারব না। রেফারিকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। আমাকেও ম্যাচ শেষে প্রতিক্রিয়া জানাতে হবে। তাই এমন পরিস্থিতিতে মন্তব্য করে ঝুঁকি নেয়ার কোনো মানে হয় না।’

ম্যাচ হারলেও টটেনহ্যামের থেকে এখনো ১ পয়েন্টে এগিয়ে টেবিলের চারে রয়েছে আর্সেনাল। ১৭ মে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের দৌড়ে টিকে থাকতে নিউক্যাসল ইউনাইটেডের বিপক্ষে মাঠে নামবে আর্তেতার শিষ্যরা। আপাতত নিউক্যাসলকে ঘিরেই পরিকল্পনা সাজাচ্ছেন কোচ।

‘এখন নিউক্যাসল নিয়ে ভাবছি। ওই ম্যাচ ঘিরেই আমাদের ফোকাস। ম্যাচটি আমাদের জন্য ঐতিহাসিক। আশা করি গ্যাব্রিয়েল ম্যাচের আগে সুস্থ হয়ে ফিরবে। প্রত্যাশা নিউক্যাসলে ছেলেরা আগের রূপে ফিরবে।’