চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Partex Cable

রেকর্ড গড়েও বিতর্কের মুখে ‘আতরাঙ্গি রে’!

Nagod
Bkash July

ওটিটি প্লাটফর্ম ডিজনি প্লাস হটস্টারে সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে পরিচালক আনন্দ এল রাই পরিচালিত ছবি ‘আতরাঙ্গি রে’। যেখানে মূখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেছেন সারা আলী খান, ধানুশ এবং অক্ষয় কুমার।

Reneta June

মুক্তির পর পরই দর্শক মহলে ছবিটি ব্যাপক সাড়া ফেললেও তার পাশাপাশি সমালোচকদের থেকে মিশ্র প্রতিক্রিয়া পেয়েছে এই ছবি। নেটিজেনদের একটা অংশ যেমন চুটিয়ে উপভোগ করেছে এই ছবি, ঠিক তেমনি অনেকেই দাবী করেছেন এই ছবিতে ‘মানসিক স্বাস্থ্যের বিষয়টা তুচ্ছ করে দেখানো হয়েছে’। এবার সেই বির্তক নিয়েই মুখ খুললেন ছবির চিত্রনাট্যকার হিমাংশু শর্মা।

জাতীয় পুরস্কার জয়ী এই কাহিনিকার তথা চিত্রনাট্যকার ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ‘আমি এই গল্পটা এবং এই ভাবনাটা বেছে নিয়েছি কারণ আমি মেন্টাল ইলনেস নিয়ে কিছু বানাতে চাচ্ছিলাম। মানুষের শরীরের গঠনতন্ত্র বুঝতে পারা মানে এই নয়, তুমি সেই মানুষটাকে বুঝবে। একটা ছবির মধ্যে অনেক কিছু থাকে। ‘আতরাঙ্গি রে’ তেমনই একটি ছবি যেখানে দেখানো হয়েছে ভালোবাসার কথা, বিচ্ছেদের কথা, ট্রমার কথা এবং কেমনভাবে সেই ট্রমা বা মানসিক ধাক্কাটা তোমার জন্য অনেক সমস্যা তৈরি করতে পারে এবং একমাত্র ভালোবাসাই সেই সমস্যার সমাধান খুঁজে দিতে পারে এমনটা।’

তিনি আরও বলেন, আদতে মানসিক স্বাস্থ্যটা এই ছবির গল্পের একটা অংশ মাত্র, এর মাধ্যমে আমি আরও গভীর বিষয় বোঝাতে চেয়েছি। কিন্তু তার মানে এই নয় যে আমি মানসিক স্বাস্থ্যের বিষয়টা তুচ্ছ করে দেখাতে চেয়েছি বা সেটা নিয়ে ভুল বার্তা দিতে চেয়েছি। দয়া করে আমার ছবির চরিত্র গুলোকে দেখুন। প্রতিটা চরিত্রকেই আমি পর্দায় যথাযথ ভাবে তুলে ধরার চেষ্টা করেছি।

প্রেমের কাহিনীকে ঘিরে নির্মিত ‘আতরাঙ্গি রে’ ছবিটির প্রথমার্ধে আপাত ত্রিকোণ প্রেমের সমীকরণ দেখানো হলেও, দ্বিতীয়ার্ধে এর কাহিনী বদলে যায় জটিল মনস্তাত্ত্বিক ধাঁধায়। মোট কথা, ‘আতরাঙ্গি রে’ হল এমন একটি অনন্য এবং জাদুকরী গল্প যা পরিচালক আনন্দ এল রাই সুন্দরভাবে জীবন্ত করে তুলেছেন।-বলছিলেন চিত্রনাট্যকার।

আনন্দ এল রাই পরিচালিত এবং ভূষণ কুমার, কালার ইয়েলো প্রোডাকশন এবং টি-সিরিজ প্রযোজিত ‘আতরাঙ্গি রে’ ছবিটি দর্শক ডিজনি প্লাস হটস্টারে উপভোগ করতে পারছেন হিন্দি ও তামিল ভাষায়। ছবিটির চিত্রনাট্য লিখেছেন হিমাংশু শর্মা।

BSH
Bellow Post-Green View