চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রুমিন বলছেন, তার আবেদন রাষ্ট্রের কাছে, সরকারের কাছে নয়

‘‘আমি এখনো বলছি সরকার অবৈধ, ১০০ পারসেন্ট অবৈধ সরকার’’

যিনি প্রতিদিন উঠতে-বসতে একাদশ জাতীয় সংসদকে ‘অবৈধ’ বলে গালি দেন, বর্তমান সরকারকে ‘অবৈধ সরকার’ বলে মুখে ফেনা তুলে ফেলেন; সেই ‘অবৈধ সংসদে’র সংরক্ষিত আসনে বিএনপি মনোনীত সদস্য রুমিন ফারহানা ‘অবৈধ সরকারে’র কাছে প্লট চেয়ে আলোচনায় আসার পর এখন বলছেন, তিনি রাষ্ট্রের কাছে প্লট চেয়েছেন, সরকারের কাছে নয়।

তবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া ১০ কাঠা প্লট চেয়ে রুমিন ফারহানার আবেদনটি করা হয়েছে গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী শ. ম. রেজাউল করিম বরাবর।

বিজ্ঞাপন

রোববার রুমিন ফারহানা এ বিষয়ে খোলামেলা কথা বলেছেন চ্যানেল আই অনলাইনের সাথে।

বাকপটু ও তুখোড় বক্তা হিসেবে পরিচিতি পাওয়া বিএনপির এই নেত্রী বলেন, ‘আবেদন আমি সরকারের কাছেও করিনি, সংসদের কাছেও করিনি। করেছি রাষ্ট্রের কাছে। রাষ্ট্রীয়ভাবে এই সুবিধাটা এমপিরা পায়।’

‘‘আমার প্রশ্ন হচ্ছে এমন আবেদন যতজন এমপি করেছেন, তাদের প্রত্যেকের নাম প্রকাশ করা হোক।’’

মন্ত্রণালয় উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে এই চিঠি প্রকাশ করেছে দাবি করে তিনি বলেন: ‘আমার এই  চিঠিতো মন্ত্রণালয়ের বাইরে আর কারও প্রকাশ করার শক্তি নেই। মন্ত্রণালয় উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে আমার এই চিঠি প্রকাশ করেছে। যাতে দু’দিন আগে আবুল মাল আব্দুল মুহিত সাহেব যে অবৈধভাবে একটি ট্যাক্স ফ্রি গাড়ি এনেছেন সেই খবরটা চাপা দেয়া যায়।’

“আমার এই বৈধ অ্যাপ্লিকেশন সামনে আনা হয়েছে, ওই অবৈধ গাড়ির খবর চাপা দেয়ার জন্য। আমার প্রশ্ন হলো কেনো এটা করা হলো? আমি সরকারকে অবৈধ বলি তাই? আমি এখনো বলছি সরকার অবৈধ। ১০০ পারসেন্ট অবৈধ সরকার। কারণ এ সরকার জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয়।”

কিছুদিন আগে সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নেওয়া বিএনপির এ নেত্রী বলেন, ‘আমাকে এক কানা জমিও দেয়া হবে না, তা আমি জানি। সরকারের কাছে আমি কিছু চাইনি। আমি চেয়েছি রাষ্ট্রের কাছে এবং আমি জেনেই চেয়েছি আমাকে এক কানা জমিও দেয়া হবে না। ইট জাস্ট এ মেকানিক্যাল অ্যাপ্লিকেশন। সব এমপি করেছে। আমিও একটা করেছি।’

সংসদের প্যাডে পাঠানো ওই আবেদনে রুমিন ফারহানা লিখেছেন, ‘ঢাকা শহরে আমার কোনো জায়গা বা ফ্ল্যাট, জমি নাই। ঢাকাস্থ পূর্বাচল আবাসিক এলাকায় ১০ কাঠার প্লটের প্রয়োজন।’

বিজ্ঞাপন

অথচ নির্বাচনী হলফনামায় নিজের নামে ১৮৫০ বর্গফুটের একটি ফ্ল্যাটের কথা নির্বাচন কমিশনে উল্লেখ করেছেন তিনি।

চ্যানেল আই অনলাইনের এ প্রতিবেদক বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন করলে জবাবে রুমিন ফারহানা বলেন, ‘ওটা আমার তিন পুরুষের অ্যাপার্টমেন্ট আমি পেয়েছি। আমার নানার থেকে আমার মা, মা থেকে আমি পেয়েছি। ওটা আমার নিজের না।

আমার বৈধ অ্যাপ্লিকেশন নিয়ে কেন এত মাতামাতি। এমনতো না আমি কারো জমি দখল করেছি। কারো প্লটে গিয়ে বাড়ি তুলেছি। তাহলে বুঝতাম অবৈধ।’

নিজের ফেসবুক আইডির বিষয়ে এই সংসদ সদস্য বলেন, ‘গত একমাস ধরে আমার ফেসবুক আইডি হ্যাক করে রাখা হয়েছে। আমার জিডিও থানা নিচ্ছে না। ফেসবুকে যে এত কথা হচ্ছে। আমি আমার বক্তব্য যে পরিষ্কার করবো। তাও পারছি না।

আর আমার নামে যে আইডিগুলো চলছে তার কোনোটাই আমার না।’

রুমিন ফারহানার ওই আবেদন প্রসঙ্গ গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী শ. ম. রেজাউল করিম চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, ‘রুমিন ফারহানা জায়গা চেয়ে আবেদন করেছেন, এটা আমি জেনেছি। হজ থেকে ফিরে আমি এখনো মন্ত্রণালয়ে যাইনি। মন্ত্রণালয়ে যাওয়ার পর এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

রাজধানীর পূর্বাচলে সরকারের কাছে ১০ কাঠার প্লট চেয়ে গত ৩ আগস্ট গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী শ. ম. রেজাউল করিম বরাবর আবেদন করেন সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা।

রুমিন সেখানে লিখেছেন, ‘‘ঢাকাস্থ পূর্বাচল আবাসিক এলাকায় ১০ কাঠার প্লটের প্রয়োজন। ঢাকা শহরে আমার কোন জায়গা/ফ্ল্যাট, জমি নাই। ওকালতি ছাড়া আমার অন্য কোন ব্যবসা/পেশা নাই। আমার নামে ১০ কাঠা প্লট বরাদ্দের জন্য সুব্যবস্থা করে দিতে আপনার মর্জি হয়।’’

গত ৯ জুন বিএনপির মনোনয়নে দলটির সহ-আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক রুমিন ফারহানা শপথ নেন।

এর আগে টেলিভিশন টকশোর পরিচিত মুখ ব্যারিস্টার রুমিন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে বিএনপির মনোনয়ন চেয়ে আলোচনায় আসেন।

Bellow Post-Green View