চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রুদ্ধশ্বাস এক জয়ে কোপার ফাইনালে বার্সা

কী ঘটল না ম্যাচে!

ডেম্বেলের দূরপাল্লার শটে অসাধারণ গোল। মেসির প্রচেষ্টা গোললাইন থেকে ফেরানো। আলবার শট ক্রসবারে লাগা। টের স্টেগেনের পেনাল্টি সেভ। যোগ করা সময়ে পিকের জানে পানি আনা গোল। খেলা অতিরিক্ত সময়ে গড়ানো। শেষে বার্সার ফাইনালের টিকিট কাটা।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

সেমির প্রথম লেগে সেভিয়ার মাঠ থেকে ২-০ গোলে হেরে আসা বার্সেলোনা দ্বিতীয় লেগে লড়ে কোপা ডেল রের ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে ৩-০ গোলের জয়ে। দুই লেগ মিলিয়ে ৩-২ ব্যবধানে জয়ী রোনাল্ড কোম্যানের শিষ্যরা।

ঘরের মাঠ ন্যু ক্যাম্পে বুধবার রাতে সেমিফাইনালের ফিরতি লেগে ম্যাচের ১২ মিনিটেই লিড নেয় বার্সা। উসমানে ডেম্বেলে গোল আনেন। বল বানিয়ে দিয়েছিলেন মেসি। কিন্তু সেটি ছাপিয়ে দূরপাল্লার যে শটে গোলটি করেছেন ফরাসি তারকা, তা চোখে লেগে থাকবে অনেকদিন।

বিজ্ঞাপন

ম্যাচের ৩১ মিনিটে মেসির বানিয়ে দেয়া লোপ্পায় পা ছোঁয়াতে পারেননি ডি ইয়ং। তিন মিনিট পর মেসির শট গোললাইন থেকে ফেরায় সেভিয়া। ১-০তেই আসে মধ্যবিরতি।

ফিরে ৬৮ মিনিটে জর্ডি আলবার শট ক্রসবার দুর্ভাগ্যে কাটা পড়ে। ৭৩ মিনিটে অতিথিদের পেনাল্টি উপহার দেয় বার্সেলোনা। নিজ বক্সে ওকাম্পোসকে ফেলে দেন অস্কার মিনগুয়েজা। শট নিয়েছিলেন লুকাস ওকাম্পোসই। কিন্তু সেভিয়াকে গোল এনে দিতে পারেননি। মার্ক-আন্দ্রে টের স্টেগেন দেয়াল হয়ে দাঁড়ান।

নির্ধারিত সময়ের যোগ করা দ্বিতীয় মিনিটে সেভিয়ার ফের্নান্দো দ্বিতীয় হলুদ কার্ডে লাল হয়ে মাঠ ছাড়লে দশ জনের দল হয়ে যায় অতিথিরা। তার দু-মিনিট পর গ্রিজম্যানের বাতাসে ভাসানো শটে মাথা ছুঁইয়ে গোল এনে বার্সাকে প্রাণ দেন জেরার্ড পিকে।

খেলা গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। ৯৫ মিনিটে আলবার বানিয়ে দেয়া বলে মার্টিন ব্র্যাথওয়েট সেভিয়া গোলরক্ষকের দু-পায়ের ফাঁক গলে হেডে গোল আনলে ফাইনালে পৌঁছার তৃপ্তিতে মাঠ ছাড়ে বার্সেলোনা।

বৃহস্পতিবার রাতে দ্বিতীয় সেমিতে লেভান্তে ও অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের মধ্যকার জয়ী দলটি হবে শিরোপার মঞ্চে বার্সার প্রতিপক্ষ।