চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রিভিউ নিলেই বেঁচে যেতেন সাদমান

ইনিংসটা হতে পারত আরও দীর্ঘ। হল না আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত মেনে নেয়ায়। তিন তিনটি অক্ষত রিভিউ থাকতেও চ্যালেঞ্জ জানালেন না সাদমান ইসলাম। ননস্ট্রাইকে থাকা অভিজ্ঞ মুশফিকুর রহিমের সমর্থনও পেলেন না তরুণ ওপেনার। ৫৯ রানে এলবিডব্লিউ হয়ে ফিরতে হল টাইগার তারকাকে।

চা-বিরতির আগে সাদমানকে হারানো আক্ষেপ হয়ে থাকল। রিভিউ নেয়ার নির্ধারিত সময় পেরিয়ে যাওয়ার পর রি-প্লেতে দেখা যায় বাঁহাতি স্পিনার জোমেল ওয়ারিকেনের ডেলিভারিটি লেগ স্টাম্পের অনেকটা বাইরে দিয়ে চলে যেত।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

প্রথম সেশনে দুই উইকেট হারানো বাংলাদেশের দ্বিতীয় সেশনে পড়েছে দুই উইকেট। ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে টাইগারদের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১৪০ রান। খেলা বাকি তৃতীয় সেশনের।

ওয়ারিকেরেন বলেই শর্ট লেগে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন অধিনায়ক মুমিনুল হক। ৯৭ বল খেলে করে যান ২৬ রান।

সাদমান ফিফটি পেরিয়ে আউট হলেও টিকেছিলেন অনেকক্ষণ। এ বাঁহাতির ১৫৪ বলের ইনিংসে চারের মার ছয়টি।

বিজ্ঞাপন

জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের ২২ গজে থিতু হওয়ার আগেই সাজঘরে ফিরে যান তামিম ইকবাল। টাইগার ওপেনার ৯ রান করে বোল্ড হন পেসার কেমার রোচের বলে।

শুরুতে উইকেট হারালেও সাদমান ও নাজমুল হোসেন শান্তর দৃঢ়তায় পঞ্চাশ পেরোয় বাংলাদেশ। প্রথম সেশনে টাইগাররা তোলে ২ উইকেটে ৬৯।

লাঞ্চ বিরতিতে যাওয়ার কিছু আগে ভুল বোঝাবুঝিতে রানআউট হয়ে যান শান্ত। তরুণ ব্যাটসম্যান করে যান ২৫ রান।

তামিম যখন আউট হন স্বাগতিকদের সংগ্রহে তখন ২৩ রান। শান্ত ফেরেন ৬৬ রানের মাথায়।

প্রায় একবছর পর টেস্ট খেলতে নামা বাংলাদেশের একাদশে একমাত্র পেসার মোস্তাফিজুর রহমান। সঙ্গে চার স্পিনার সাকিব আল হাসান, তাইজুল ইসলাম, মেহেদী হাসান মিরাজ, নাঈম হাসান।