চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘রাব্বানী-সাদ্দামের ফোনালাপ উপাচার্যকে বিতর্কিত করার ষড়যন্ত্র’

ফোনালাপ প্রসঙ্গে জাবি কর্তৃপক্ষের বক্তব্য

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন মহাপরিকল্পনার টাকা পয়সার ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে উপাচার্যকে জড়িয়ে ছাত্রলীগের দুই নেতার ফোনালাপকে ‘অসত্য’ ও ‘উদ্দেশ্যমূলক’ দাবি করে প্রতিবাদ জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

শনিবার সন্ধ্যায় ছাত্রলীগের সদ্য অপসারিত সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী এবং জাবি ছাত্রলীগের যুগ্ম-সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনের কথিত ফোনালাপ ফাঁস হয়। এরপর তা মুহূর্তেই সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

বিজ্ঞাপন

এর পরিপ্রেক্ষিতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, উপাচার্য ড. ফারজানা ইসলামকে ফাঁসানোর জন্যই কথোপকথনের বিষয়টি পরিকল্পিতভাবে হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

রোববার দুপুর ১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ কার্যালয় থেকে পাঠানো এক জরুরি বিজ্ঞপ্তিতে এ প্রতিবাদ ও দাবি জানানো হয়।

ওই বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়: উপাচার্যের সঙ্গে টাকা ভাগের কোনো আলাপ হয়নি। তিনি কাউকেই অর্থ দেননি। উপাচার্যকে বিতর্কিত করার ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে গোলাম রাব্বানী এই ফোনালাপের গল্প তৈরি করেছেন। এ ধরনের পরিকল্পিত মিথ্যা গল্পের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাচ্ছে কর্তৃপক্ষ।

এই ‘মিথ্যে গল্পের’ সত্যাসত্য প্রমাণ করার দায়িত্ব উপাচার্যের নয় বলেও ওই বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ দেশবাসী এবং সংশ্লিষ্ট সকলকে মিথ্যা অপপ্রচারে বিভ্রান্ত না হয়ে সত্য ও ন্যায়ের পক্ষে সমর্থন ও অবস্থান নেয়ার আহবান জানিয়েছেন।

Bellow Post-Green View