চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রাবেয়া-রোকেয়াকে দেখতে হাসপাতালে প্রধানমন্ত্রী

প্রায় ৩৩ ঘণ্টার সফল অস্ত্রোপচার শেষে যমজ মাথা আলাদা করার পর রাবেয়া-রোকেয়াকে দেখতে হাসপাতালে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রোববার দুপুরে সিএমএইচে চিকিৎসাধীন ওই শিশুদের দেখতে যান তিনি। এসময় প্রধানমন্ত্রী তাদের সার্বিক অবস্থার খোঁজ খবর নেন।

বিজ্ঞাপন

এরপর শেখ হাসিনা সিএমএইচে চিকিৎসাধীন প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব মেজর জেনারেল মিয়া মোহাম্মদ জয়নুল আবেদিনকেও দেখতে যান। সেখানে কিছু সময় অতিবাহিত করেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

এ সময় সেখানে সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদসহ ঊর্ধ্বতন সামরিক এবং বেসামরিক কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এরআগে সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনির স্বামী বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের অ্যাডভোকেট তৌফীক নেওয়াজকে দেখতে যান। তিনি তার চিকিৎসার খোঁজ-খবর নেন।যমজ শিশু রাবেয়া-রোকেয়ার প্রথম ধাপে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এবং ০৪ জানুয়ারি ২০১৯ থেকে হাঙ্গেরিতে ৪৮টি ছোট বড় সার্জারি সম্পন্ন হয়।

গত ২২ জুলাই রাবেয়া এবং রোকেয়ার অস্ত্রোপচারের সবচেয়ে জটিল অংশ ‘জমজ মস্তিষ্ক’ আলাদা করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় হাঙ্গেরি থেকে তাদেরকে ঢাকা সিএমএইচ এ নিয়ে আসা হয়। সিএমএইচে চূড়ান্ত অপারেশনের পর তাদের যুক্ত মাথা আলাদা করা হয়েছে।

হাঙ্গেরিতে তাদের কয়েক দফা চিকিৎসার পরপুরো চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রাবেয়া-রোকেয়ার বাড়ি পাবনার চাটমোহরে। তাদের বয়স সাড়ে তিন বছর।