চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রাবির কৃষি অনুষদে আগুনে অর্ধলাখ টাকার ক্ষতি

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) কৃষি অনুষদে আগুনে পুড়ে প্রায় অর্ধলাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি অ্যান্ড এনিমেল সায়েন্স বিভাগের টি-রুমে (চা তৈরি করার রুম) এই ঘটনা ঘটে। তবে এতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

প্রত্যক্ষদর্শী ও ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা যায়, বিকেলে ওই বিভাগের কয়েকজন শিক্ষার্থী তৃতীয় তলার একটি ল্যাবে কাজ করছিলেন। হঠাৎ পুরো ভবন ধোঁয়া আর গন্ধে ভরে যায়। তখন শিক্ষার্থীরা বের হয়ে আশে পাশের লোকজন ডাকে। এসময় ওই বিভাগের প্রহরী ও আরও কয়েকজন এসে আগুন নিয়ন্ত্রণ করেন।

বিজ্ঞাপন

পরে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে আসলে ততক্ষণে আগুন নিয়ন্ত্রণে চলে আসে। তবে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লেগেছে বলে তারা পর্যবেক্ষণ করে জানান।

বিজ্ঞাপন

সরেজমিনে দেখা গেছে, ভেটেরিনারি অ্যান্ড এনিমেল সায়েন্স বিভাগের ছোট রুমে একটি বৈদ্যুতিক মেইন সুইচ রয়েছে। আর ওই রুমটি টি-রুম হিসেবে ব্যবহার করা হয়। মেইন সুইচের পাশেই ছিল একটি ফ্রিজ। আগুনের তাপে ফ্রিজটির একপাশ গলে গেছে। মেইন সুইচের আরেকটু পাশেই রয়েছে বৈদ্যুতিক হিটার, পানির ফিল্টার, কিছু কাগজপত্র, প্লেট, কাপ, গ্লাস। তবে আগুন লাগার ফলে তার অধিকাংশ জিনিসপত্রই পুড়ে গেছে।

বিভাগের প্রহরী নাসিফুল ইসলাম বলেন, আগুন লাগার আগে ওই বিভাগের কিছু শিক্ষার্থী পাশের ল্যাবে কাজ করছিলেন। কিন্তু তার কিছুক্ষণ পরেই বিভাগের টি-রুম থেকে ধোয়া আর গন্ধ বের হতে থাকে। শিক্ষার্থীরা এমন অবস্থা দেখে আশে পাশের লোকজন ডাকলে আমিসহ কয়েকজন মিলে পানি ও পাটের বস্তা দিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনি।

তিনি আরও বলেন, কিন্তু যে রুমে আগুন লেগেছিলো সেটি তালা দিয়ে আটকানো ছিলো। তারপরও কিভাবে আগুন লাগলো তা প্রথম দিকে কেউ বুঝতে পারিনি। পরে ভিতরে ঢুকে দেখা গেছে মেইন সুইচের বাক্সের ভিতরে ইঁদুরে বাসা তৈরি করেছে। মেইন সুইচ থেকেই আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ও ইলেকট্রিক মিস্ত্রিরাও ইদুরে বৈদ্যুতিক তার কেটে দেওয়ার ফলে আগুন লেগেছে বলে জানান। 

বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক এস এম কামরুজ্জামান বলেন, রোজার রাখায় অফিস থেকে কাজ শেষে বাসায় চলে আসি। এর কিছুক্ষণ পরে ফোন করে আগুন লাগার ঘটনাটি জানতে পারি। পরে বিভাগের এক শিক্ষককে ঘটনাস্থলে পাঠাই এবং ফায়ার সার্ভিসকে ফোন দেই। তবে আগুনে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি শুধু একটা ফ্রিজ এবং কিছু জিনিসপত্র পুড়ে গেছে।