চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রাবিতে সাংবাদিককের বিরুদ্ধে দায়ের করা অভিযোগ প্রত্যাহারের আলটিমেটাম

রাবি প্রতিনিধি:বাংলাদেশ প্রতিদিনের বিশ্ববিদ্যালয় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি মর্তুজা নুরের বিরুদ্ধে থানায় দায়ের করা অভিযোগ প্রত্যাহারের জন্য ২৪ ঘণ্টার আলটিমেটাম দিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকরা।

অন্যথায় তারা কঠোর কর্মসূচিতে যাবে বলে ঘোষণা দেন। রোববার দুপুরে প্যারিস রোডে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন থেকে ক্যাম্পাস সাংবাদিকেরা এই দাবি জানান।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

এর আগে সংবাদ প্রকাশের জেরে গত শুক্রবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার্স ইউনিটির সাবেক সভাপতি মর্তুজা নুরের বিরুদ্ধে মতিহার থানায় লিখিত অভিযোগ দেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় স্কুলের শিক্ষক রুনা লায়লা। তবে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ধারার সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ না হওয়ার পুলিশ অভিযোগটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) হিসেবে গ্রহণ করে।

বিজ্ঞাপন

কর্মসূচিতে বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি ও ডেইলি স্টারের প্রতিনিধি আরাফাত রহমান বলেন, ‘এখন সাংবাদিকদের ওপর দমন-নিপীড়ন চালানোর জন্যই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ব্যবহার করা হচ্ছে। তেমনি মর্তুজা নুরের সংবাদে কোন মিথ্যা তথ্য, সাংবাদিকের মতামত কিংবা ব্যক্তিবিদ্বেষ ছিল না। খোলা চোখে দেখলেই বোঝা যায়, ওই শিক্ষিকার জিডি মিথ্যা এবং উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। কেউ যখন অন্যায়, অপরাধ করেন তখন তারা সেটিকে মানহানি বলে মনে করেন না। কিন্তু সংবাদে প্রকাশ হলেই তারা সেটিকে মানহানির অপরাধ বলেন।’

এ সময় বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও দেশ রূপান্তরের প্রতিনিধি শাহীন আলম বলেন, ‘শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরিচালক ওই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে পদত্যাগ করেছেন। মর্তুজা নুরের সংবাদে এই বিষয়টিই উঠে এসেছে। কিন্তু তিনি বিষয়টি ভালভাবে নিতে না পেরে সাংবাদিকের বিরুদ্ধেই উঠে-পড়ে লেগেছেন।’
মানববন্ধনে সাংবাদিকেরা ওই শিক্ষিকার অভিযোগ প্রত্যাহারের জন্য ২৪ ঘণ্টার আলটিমেটাম দেন। একইসঙ্গে তারা বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও যুগান্তরের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি মানিক রাইহানের বিরুদ্ধে আইসিটি অ্যাক্টের ৫৭ ধারায় দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান।

কর্মসূচিতে বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি, রিপোর্টার্স ইউনিটি, প্রেসক্লাবের সদস্যসহ ক্যাম্পাসে কর্মরত সাংবাদিকেরা উপস্থিত ছিলেন।

রিপোর্টার্স ইউনিটির সহ-সভাপতি খুর্শিদ রাজিবের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক শাহীন আলম, সাবেক সভাপতি সুজন আলী, বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি আরাফাত রহমান, সহ-সভাপতি হারুন অর রশিদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আহমেদ ফরিদ, বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাবের সভাপতি সালমান শাকিল, সহ-সভাপতি আকরাম হোসেন, সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসাইন বক্তব্য দেন।