চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রাবিতে সংবাদ সম্মেলনে দুই পক্ষের শিক্ষকদের হাতাহাতি!

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রপ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি বিভাগে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষকদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে।

মঙ্গলবার বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম ও অন্য এক শিক্ষকদের মধ্যে পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলনে এ ঘটনা ঘটে।

সোমবার একই বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক মু. আলী আসগর শিক্ষক নিয়োগের বিষয়ে প্লানিং কমিটি ও আদালতের নিষেধাজ্ঞা বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন।

তবে মঙ্গলবার বিভাগের সভাপতি কর্তৃক আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনের মাঝে হঠাৎ করেই বিভাগের কাওছার আলী, নূরুল আলমসহ কয়েকজন শিক্ষক এসে সাইফুল ইসলামের অভিযোগ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন বলে দাবি করেন। এ সময় দুই পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি ও উচ্চবাচ্যের ঘটনা ঘটে। এতে সংবাদ সম্মেলনটি পণ্ড হয়ে যায়। ঘটনাস্থলে অধ্যাপক খাইরুল ইসলাম, অধ্যাপক যুগোল কুমার সরকার, সহযোগী অধ্যাপক এ কে এম আবদুল বারীসহ সংবাদকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন

এর আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে অধ্যাপক মু. আলী আসগর বলেছিলেন, শিক্ষক নিয়োগের বিষয়ে আদালতের নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্ত্বেও সদস্যদের ছাড়াই প্লানিং কমিটির সভা করেছেন বিভাগের সভাপতি ড. সাইফুল ইসলাম। সদস্যরা উপস্থিত না থাকলেও তাদের উপস্থিতি দেখিয়ে সভা সম্পন্ন করা হয়েছে।

এ ঘটনায় সভার তারিখ গোপন ও স্বাক্ষর জালিয়াতির অভিযোগ তুলেছেন প্লানিং কমিটির অন্য সদস্যরা। এসময় বিভাগের শিক্ষক কাওছার আলী, নূরুল আলম উপস্থিত ছিলেন।

কিন্তু এ বিষয়ে  পরদিন সংবাদ সম্মেলন করে লিখিত বক্তব্যে সভাপতি অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম বলেন, বিভাগের শিক্ষক নিয়োগের বিষয়ে প্লানিং কমিটির সদস্যদের ২২ ডিসেম্বর ৫৭তম সভার ও ২৬ ডিসেম্বর একই বিষয়ে ৫৮তম সভার আহ্বান করি। সভায় প্লানিং কমিটির সদস্যরা অনুপস্থিত থাকায় সভা করা সম্ভব হয়নি। পরে আমি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের অনুমতি নিয়ে সভা সম্পন্ন করি।

সংবাদ সম্মেলনে হাতাহাতির কারণ জানতে চাইলে সাইফুল ইসলাম বলেন, গতকাল তারা যখন সংবাদ সম্মেলন করেছেন আমরা সেখানে যাইনি। কিন্তু আজ সংবাদ সম্মেলনকে পণ্ড করতেই তারা এখানে উপস্থিত হয়েছেন।

বিজ্ঞাপন