চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রানী এলিজাবেথ ও বরিস জনসনকে শেখ হাসিনার চিঠি

প্রিন্স ফিলিপের মৃত্যুতে শোক

ডিউক অব এডিনবরা প্রিন্স ফিলিপের মৃত্যুতে শোক জানিয়ে তার স্ত্রী রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ ও ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে পৃথক চিঠি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিমের সই করা এক বার্তায় এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

প্রিন্স ফিলিপের মৃত্যুতে গভীর শোক জানিয়ে রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের কাছে লেখা চিঠিতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশের জনগণের কাছে ডিউক অব এডিনবরার দায়িত্ব ও সম্মানের উদাহরণ এবং আপনার মহিমা কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোর জনগণের পক্ষে শক্তি ও সহায়তার একটি স্তম্ভ হয়ে থাকবে। প্রিন্স ফিলিপের সঙ্গে আপনার ঐতিহাসিক সফরকে আমরা স্মরণ করছি। তার মৃত্যুর সঙ্গে সঙ্গে বাংলাদেশ এবং ব্রিটিশ-বাংলাদেশি সম্প্রদায় একটি সত্য বন্ধু এবং মিত্রকে হারিয়েছে।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রিন্স ফিলিপের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত রাজ-পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

বিজ্ঞাপন

প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে লেখা চিঠিতে শেখ হাসিনা বলেন, ‘বাংলাদেশের জনগণ ও সরকার এবং আমার পক্ষ থেকে ডিউক অব এডিনবরা এবং রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের স্বামী প্রিন্স ফিলিপের মৃত্যুতে গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করছি। বাংলাদেশে তার ব্যক্তিগত সফর এবং বাংলাদেশের সঙ্গে তার যোগাযোগ ও সহযোগিতার স্মৃতি এবং তার আচরণ আমাদের অনেক মানুষের হৃদয়কে স্পর্শ করে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক জোরদার করতে তার মূল্যবান অবদানের কথাও স্মরণ করছি। কারণ আমরা দুই দেশের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক প্রতিষ্ঠার ৫০তম বার্ষিকী উদযাপনের অপেক্ষায় রয়েছি।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘শোকাবহ এই মুহূর্তে, প্রিন্স ফিলিপের বিদেহী আত্মার মুক্তির জন্য দোয়া করতে ব্রিটেনের বন্ধুত্বপূর্ণ জনগণ এবং সরকারের সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়েছি। তার মহিমান্বিতা রানী ও রাজ পরিবারের সদস্যদের এই অপূরণীয় ক্ষতি সহ্য করার জন্য দৃঢ়তা ও শক্তি কামনা করি।’

শুক্রবার সকালে ব্রিটেনের রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের স্বামী ও ডিউক অব এডিনবরা প্রিন্স ফিলিপ মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯৯ বছর।