চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

স্ত্রী ও শিশু কন্যাকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যায় অভিযুক্ত মাদকাসক্ত স্বামী

রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলায় স্ত্রী ও পাঁচ মাসের শিশুকে বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে এক মাদকাসক্ত স্বামীর বিরুদ্ধে। সোমবার গভীর রাতে রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার গোপালহাটি গ্রামের ফকিরপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- পলি খাতুন (২০) ও তার পাঁচ মাস বয়সী মেয়ে ফারিয়া খাতুন।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার ভোরে যাত্রীবাহী বাস থেকে অভিযুক্ত স্বামী ফিরোজকে আটক করা হয়েছে। বর্তমানে তাকে রাজশাহীর পুঠিয়া থানায় নিয়ে আসা হচ্ছে বলে জানায় রাজশাহীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ ইফতে খায়ের আলম।

বিজ্ঞাপন

তিনি জানান, খবর পেয়ে মঙ্গলবার ভোরে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর পর পুলিশ নিহতদের মরদেহের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে। বর্তমানে মরদেহ দুটি ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। খবর পেয়ে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

রাজশাহীর পুলিশ সুপার ইফতে খায়ের আলম আরও জানান, ফিরোজ আরপিএল এলিগেন্স বাসে সুপারভাইজার হিসেবে কাজ করতেন। একটি সড়ক দুর্ঘটনায় তার এক পা কাটা পড়ে। এরপর থেকে ফিরোজ হেরোইন সেবন শুরু করে।

একপর্যায়ে তিনি অতিমাত্রায় হেরোইন আসক্ত হয়ে পরেন। হেরোইন কেনার টাকার জন্য ফিরোজ মাঝেমধ্যেই স্ত্রী পলি খাতুনের ওপর নির্যাতন চালাতেন। এ নিয়ে ঝগড়া-বিবাদ ছিল রোজকার ঘটনা। এর সূত্র ধরেই রাগে-ক্ষোভে স্ত্রী ও কন্যাশিশুকে ঘুমের ঘোরে বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

আটক ফিরোজকে রাজশাহী নিয়ে আসার পর তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। এ ঘটনায় হত্যা মামলা দায়ের করা হবে বলেও জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।