চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

যে কারণে হলিউড সিনেমা বর্জনের আহ্বান জানালেন কঙ্গনা

বলিউডের ‘ঠোঁট কাটা’ অভিনেত্রী হিসেবে খ্যাতি আছে কঙ্গনা রানাউতের। সবাই তাকে সমীহও করেন। দেশ বিদেশের যে কোনো আলোচিত ঘটনায় মন্তব্য করাই যেন তার অভ্যেস। যার জন্য মাশুলও গুনতে হয় তাকে।

সম্প্রতি হলিউড সিনেমা না দেখে ভারতীয় সিনেমা দেখার প্রসঙ্গে মুখ খুলেছেন কঙ্গনা। কদিন আগেই দিল্লীতে নিজের নতুন সিনেমা ‘থালাইভি’এর প্রমোশনে গিয়ে হলিউড সিনেমা দেখার অভ্যেস বর্জন করার আহ্বান জানিয়ে এসেছেন। যা এখন আলোচিত।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

হলিউড সিনেমা বর্জন নিয়ে কঙ্গনা বলেন, ‘আত্মনির্ভর ভারত’ গড়ে তোলার জন্য আমাদের উচিত ভারতের সিনে-ইন্ডাস্ট্রিগুলোকে আরও বেশি করে উৎসাহ জোগানো।

বিজ্ঞাপন

অভিনেত্রী আরও জানান, “আমেরিকান কিংবা ইংরেজি ছবি ভারতীয় সিনেমার বাজার নষ্ট করছে। এক দেশ এক জাতি হিসেবে এর মোকাবিলা করা উচিত। দক্ষিণ ভারত কিংবা উত্তর ভারত এই ধরনের বৈষম্যমূলক চিন্তাধারা বাদ দেওয়া উচিত। দেশীয় সিনেমা আরও বেশি করে দেখা উচিত আমাদের। সেটি হোক মালায়ালাম, তামিল, তেলেগু কিংবা পাঞ্জাবি সিনেমা।”

কঙ্গনার মতে, “আন্তর্জাতিক ময়দানে একচেটিয়া আধিপত্যের কারণে হলিউড আজ ফ্রেঞ্চ, ইটালিয়ান, জার্মান এবং বিশ্বের অন্যান্য অঞ্চলের সিনে-ইন্ডাস্ট্রিগুলোকে ধ্বংস করে দিয়েছে। ভারতেও ঠিক তাই করছে। আমাদের নিজেদের ইন্ডাস্ট্রিকে আগে গুরুত্ব দেওয়া উচিত। এভাবেই আত্মনির্ভর ভারত গড়ে উঠবে।”

এদিকে মুক্তির প্রথম দিনে কঙ্গনার ‘থালাইভি’ আয় করেছে মাত্র সোয়া এক কোটি রূপি, আর দ্বিতীয় দিনে ছবিটি আয় করেছে প্রায় দেড় কোটি রূপি।

বিজ্ঞাপন