চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

যুবাদের সঙ্গে ম্যাচ দিয়ে শেষ হচ্ছে এইচপি কার্যক্রম

বিসিবির হাই-পারফরম্যান্স ইউনিটের(এইচপি) চলতি বছরের কার্যক্রম শেষ হচ্ছে আগামী ১৪ সেপ্টেম্বর। চট্টগ্রামে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ খেলেই ইতি ঘটবে এইচপি ক্যাম্পের। ১২ ও ১৪ সেপ্টেম্বর মাঠে গড়াবে ম্যাচ দুটি। অংশ নিতে সোমবার চট্টগ্রাম পৌঁছেছে উভয় দল।

দেশের উদীয়মান ক্রিকেটারদের পরবর্তী পর্যায়ের জন্য তৈরি করা, আর প্রতিভাবানদের পরিচর্যার লক্ষ্য নিয়ে গত ২৮মে শুরু হয়েছিল চলতি বছরের এইচপি কার্যক্রম। যেখানে অংশ নেন ২৪ ক্রিকেটার।

এবার কোনো বিদেশ সফর ছাড়াই শেষ হচ্ছে এইচপি ক্যাম্প। সেপ্টেম্বরের শুরুতে শ্রীলঙ্কা সফরের সম্ভাবনা ছিল, সেটি বাতিলই হয়ে গেছে।

বিসিবির গেম ডেভেলপমেন্ট বিভাগের ম্যানেজার এ ই এম কাওসার চ্যানেল আই অনলাইনকে জানালেন, আগামী বছরের সূচিতে এইচপি ক্যাম্পে শ্রীলঙ্কা সফর অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

‘এইচপির ট্যুর মূলত ট্রেনিং প্ল্যাটফর্ম। এটা আগামী ক্যালেন্ডারে আমরা রেখেছি। এইচপির যে খেলোয়াড়রা ছিল, তাদের বেশিরভাগই ‘এ’ দলের হয়ে আয়ারল্যান্ড সফর করে এসেছে। তারপরও যারা বাইরে ছিল তাদের নিয়ে চিন্তা-ভাবনা ছিল। শ্রীলঙ্কার সঙ্গে টাইমিং মেলেনি বলেই হয়নি। ওরা যখন চাচ্ছিল, তখন আমাদের ঘরোয়া মৌসুমের খেলা আছে।’

বিসিবি গত চার বছর ধরে নিয়মিত আয়োজন করে আসছে বিশেষায়িত প্রোগ্রাম এইচপি। গত বছরও এইচপি দলের ক্রিকেটাররা অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ড সফর করেছিলেন। এবার সেই সুযোগ পেলেন না তারা।

এইচপি’র অধীনে বিদেশের মাটিতে খেলার সুযোগ না পেলেও দেশের মধ্যে বেশ কয়েকটি ম্যাচ খেলার সুযোগ হয়েছে ক্রিকেটারদের। বিকেএসপি ও খুলনায় তিনটি করে ৫০ ওভারের ম্যাচ খেলেছে এইচপি দল। সেখানেও প্রতিপক্ষ ছিল অনূর্ধ্ব-১৯ দল।

সামনে অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপ থাকায় টাইগার যুবাদের খেলার মধ্যে রাখতে চেয়েছে বিসিবির গেম ডেভেলপমেন্ট বিভাগ। সেজন্যই সিরিজ আয়োজন।

যুব এশিয়া কাপ ২৭ সেপ্টেম্বর শুরু হয়ে চলবে ৮ অক্টোবর পর্যন্ত। টুর্নামেন্টের ম্যাচগুলো হবে বিকেএসপি ও চট্টগ্রামে। প্রাথমিকভাবে চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারে আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল টুর্নামেন্টের আয়োজক বিসিবি।

বিজ্ঞাপন