চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

যুক্তরাষ্ট্রে করোনার ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরু হচ্ছে সোমবার

ফাইজার-বায়োএনটেকের তৈরি করোনা ভ্যাকসিন ব্যবহারের জরুরি অনুমোদনের পর এবার ভ্যাকসিন কর্মসূচি শুরু করতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। সোমবার থেকে দেশটিতে ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরু হবে বলে স্থানীয় কর্মকর্তারা নিশ্চিত করেছেন।

ভ্যাকসিন বিতরণ তদারকি করার দায়িত্বে থাকা জেনারেল গুস্তাভ পার্না জানিয়েছেন, চলতি সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের সব অঙ্গরাজ্যে ৩০ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন পৌঁছে যাবে। এর আগে গত শনিবার ফাইজারের তৈরি ভ্যাকসিন ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছে দেশটির খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসন (এফডিএ)। এই ঘটনাকে উল্লেখযোগ্য মাইলফলক বলে বর্ণনা করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে ফাইজার-বায়োএনটেক উদ্ভাবিত টিকাটি অনুমোদন করে যুক্তরাজ্য। গত মঙ্গলবার দেশটির সাধারণ মানুষের ওপর ভ্যাকসিনটি প্রয়োগ শুরু হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

ফাইজার/বায়োএনেটেক উদ্ভাবিত ভাইরাসটি ৯৫ শতাংশ সুরক্ষা দিচ্ছে বলে জানা গেছে। যুক্তরাষ্ট্রের নিয়ন্ত্রক সংস্থা খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসনও (এফডিএ) ভ্যাকসিনটিকে নিরাপদ বলে মনে করছে।

গত নভেম্বর থেকেই যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে মৃত্যু দ্রুত বাড়ছে। এমন প্রেক্ষাপটে শুক্রবার ফাইজার-বায়োএনেটেকের ভ্যাকসিন জরুরি ব্যবহার অনুমোদন করে এফডিএ। ভ্যাকসিন অনুমোদন করতে সংস্থাটির ওপর ট্রাম্প প্রশাসনের চাপ বাড়েত থাকার মধ্যে এই সিদ্ধান্ত দেওয়া হলো। এই সিদ্ধান্তকে মহামারির জন্য গুরুত্বপূর্ণ মাইলস্টোন বলে মনে করা হচ্ছে।

অন্যদিকে, শনিবার যুক্তরাষ্ট্র করোনায় দৈনিক মৃত্যুর রেকর্ড দাঁড়িয়েছে তিন হাজার ৩০৯ জনে। জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের রেকর্ড অনুযায়ী বিশ্বব্যাপী যেকোনও স্থানে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহান শহরে প্রথম শনাক্ত হওয়ার পর ইতোমধ্যেই বিশ্বজুড়ে মহামারি আকার নিয়েছে করোনাভাইরাস সংক্রমণ। কোটি কোটি মানুষকে আক্রান্ত করা এই ভাইরাস কেড়ে নিয়েছে লাখ লাখ মানুষের প্রাণ।