চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ম্যারাডোনার মরদেহের সঙ্গে সেলফি তুলে চাকরি গেলো তার

পাচ্ছেন হত্যার হুমকিও

আর্জেন্টাইনদের মন ভালো নেই। নিজেদের ইতিহাসের সেরা সন্তান ডিয়েগো ম্যারাডোনাকে হারিয়ে আজ শোকে পাথর দেশটির প্রতিটি নাগরিক। ১৯৮৬ বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ককে চিরবিদায় জানানো হয়েছে শুক্রবার, চলছে শোক। এর মধ্যে অবিবেচকের মত এক কাজ করে দেশের মানুষের চক্ষুশূল হয়েছেন ডিয়েগো মলিনা নামের একজন অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া কর্মী।

দেশবাসীর শেষ শ্রদ্ধা জানানোর জন্য শুক্রবার কাসা রোসাডায় রাখা হয়েছিলো ম্যারাডোনার কফিন। এর আগে এক অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া কেন্দ্রে সারা হয় কিংবদন্তির যাবতীয় আনুষ্ঠানিকতা। সেই কেন্দ্রেরই কর্মী মলিনার এক কাণ্ড খেপিয়ে তুলেছে আর্জেন্টাইনদের। ম্যারাডোনার মরদেহের সঙ্গে তুলে বসেছেন সেলফি!

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

শুধু সেলফিই তুলেননি মলিনা, সেটা আবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে ছেড়েও দিয়েছেন। সেই ছবিগুলোকে ম্যারাডোনার প্রতি চরম অশ্রদ্ধা হিসেবে ধরে নিয়েছে আর্জেন্টাইনরা।

বিজ্ঞাপন

বিষয়টা নজরে আসার পরপরই সেই কর্মীকে বরখাস্ত করেছে অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া কেন্দ্রটি। ম্যারাডোনা ভক্তরা দাবি তুলেছেন বিচারের।

একাধিক আর্জেন্টাইন গণমাধ্যম থেকে জানানো হয়েছে, একাধিক মৃত্যু হুমকিও পেয়েছেন মলিনা।

বিষয়টি নিয়ে খেপেছেন ম্যারাডোনার আইনজীবী মাতিয়াস মোরলা। তিনি এরইমধ্যে দেরিতে অ্যাম্বুলেন্স আসায় কিংবদন্তির ব্যক্তিগত চিকিৎসককে কাঠগড়ায় তুলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন, এরমাঝে সেই সেলফি দেখে আর নিজের ক্ষোভ সামলাতে পারেননি।

টুইটারে লিখেছেন, ‘আমার প্রয়াত বন্ধুর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা রেখে বলছি, যতদিন না এই ঘৃণ্য অপরাধীকে শাস্তি দেওয়ায় হচ্ছে ততদিন আমি বিশ্রাম নেব না!’