চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ম্যানইউর দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তনে জয়ী গোলটি রোনালদোর

আধাঘণ্টার মধ্যে দুই গোলে পিছিয়ে পড়ার পর তিন গোল ফিরিয়ে দিয়ে দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তনের গল্প লেখা। জয়সূচক গোলটি আবার মহাতারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে আটালান্টাকে হারানোর পথে দুর্দান্ত এক রাতই কেটেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের।

ওল্ড ট্রাফোর্ডে বুধবার রাতে পাঁচ গোলের রোমাঞ্চের শেষে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ৩-২ গোলে হারিয়েছে আটালান্টাকে। মার্কাস রাশফোর্ড ও হ্যারি ম্যাগুইরের গোলে সমতায় ফেরার পর জয়ের উল্লাসে মাতান চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা সিআর সেভেন।

গ্রুপ এফ’তে ৩ ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে এখন ম্যানইউ। সমান ম্যাচে ৪ পয়েন্টে দুইয়ে আটালান্টা, ৪ পয়েন্টে গোলপার্থক্যে পিছিয়ে তিনে ভিয়ারিয়াল ও ৩ পয়েন্ট নিয়ে শেষে ইয়াং বয়েজ।

বিজ্ঞাপন

ঘরের মাঠে ম্যাচের ১৫ মিনিটে পিছিয়ে পড়ে ম্যানইউ। যখন অতিথিদের গোল এনে দেন পাসালিচ। ২৯ মিনিটে ডেমিরেল ব্যবধান দ্বিগুণ করে দিলে আরেকটি বিপর্যয়ের শঙ্কা ভাসে রেড ডেভিলদের আস্তানায়।

সেখান থেকে ঘুরে দাঁড়ানোর গল্পের শুরু। প্রথমার্ধে পিছিয়ে থেকে ফেরার পর ম্যাচের ৫৩ মিনিটে ম্যানইউ ডাগআউটে স্বস্তির হাওয়া বইতে শুরু করে রাশফোর্ডের গোলে। বলের যোগানদাতা ছিলেন ফের্নান্দেস।

ম্যাচের ৭৫ মিনিটে ম্যাগুইরের গোলে আসে সমতা। এই গোলেও বল বানিয়ে দিয়েছেন ফের্নান্দেস। সমতায় ফিরে পূর্ণ পয়েন্ট তুলতে অতিথি রক্ষণে আক্রমণ ও চাপ বাড়িয়ে চলে ম্যানইউ।

ফলও আসে দ্রুতই। ৮১ মিনিটে গোল এনে দেন রোনালদো। পর্তুগিজ মহাতারকাকে বল এগিয়ে দিয়েছিলেন লুক শ। ওই গোলের পর আর পিছে ফিরে তাকে হয়নি চাকরি টানাটানির মধ্যে থাকা কোচ ওলে গানার সোলশারকে। হাসিমুখে মাঠ ছাড়তে পারেন তিনি।

বিজ্ঞাপন