চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মৌসুমীর প্যানেলে সেক্রেটারি পদপ্রার্থী ডিএ তায়েব

শিল্পী সমিতির নির্বাচন:

দিন যতই যাচ্ছে আসন্ন শিল্পী সমিতির নির্বাচন নিয়ে শিল্পীদের নির্বাচনী তোড়জোড় ততই বাড়ছে। ক’দিন আগে চিত্রনায়িকা মৌসুমী ঘোষণা দিয়েছেন, তিনি এবার সভাপতি পদে নির্বাচন করবেন। তবে তার প্যানেলে সেক্রেটারি কে হবেন, সেটি জানাননি। 

বৃহস্পতিবার চিত্রনায়ক ডিএ তায়েব চ্যানেল আই অনলাইনকে জানান, মৌসুমীর প্যানেলে তিনি সেক্রেটারি পদপ্রার্থী হচ্ছেন। তিনি বলেন, সভাপতি পদপ্রার্থী থাকবেন মৌসুমী। আমি সেক্রেটারি পদপ্রার্থী।

বিজ্ঞাপন

‘বুধবার রাতে মৌসুমীর বাসায় এ বিষয়ে মিটিং করেছি। চলচ্চিত্রের আলোকিত মুখ, স্টার, সুপারস্টার যারা তারা প্রত্যেকেই আমাদের দুজনকে সমর্থন দিয়েছেন।’-বলছিলেন ডি এ তায়েব।

ডিএ তায়েব বলেন, শাকিব খানের সঙ্গে প্যানেল দিতে চেয়েছিলাম। কিন্তু শাকিব নির্বাচন করবেন না। মৌসুমীর প্যানেলে তার সমর্থন রয়েছে। আমি ওই প্যানেলের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী হচ্ছি। সাইমন এই প্যানেল থেকে নির্বাচনে অংশ নিবেন শোনা গেলেও সেক্রেটারি পদে উনি থাকবেন না বলে জানান। তাই আমাকে প্রত্যেকেই সেক্রেটারি পদে সমর্থন দিয়েছেন।’

ডিএ তায়েবের সঙ্গে আলাপকালে তিনি জানান, মৌসুমী-ডিএ তায়েব প্যানেলে শাকিব খান, রিয়াজ, ফেরদৌস, পপি, পূর্ণিমা, অমিত হাসান, পরীমনি, নিপূণ, ববি, ইমন, নিরবের মতো জনপ্রিয় চিত্রতারকারা সমর্থন দিয়েছেন।

তাদের সাহস ও উৎসাহে মৌসুমীর প্যানেলে ডিএ তায়েব সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন বলে জানান।

ডিএ তায়েব অভিনীত ‘সোনাবন্ধু’ এবং ‘অন্ধকার জগত’ দুটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে ‘আমার মা’ শিরোনামে আরো একটি ছবি। গেল নির্বাচনে প্রথম ভোট দিয়েছিলেন ডিএ তায়েব। দ্বিতীয়বারেই তিনি সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হচ্ছেন।

এদিকে শিল্পী সমিতির গঠনতন্ত্রে উল্লেখ আছে, কোনো অভিনয় শিল্পী যদি অন্তত ৫টি ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ  চরিত্রে অভিনয় না করেন তাহলে তিনি শিল্পী সমিতির নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারবেন না।

অথচ ডিএ তায়েব অভিনীত ছবি মুক্তি পেয়েছে মাত্র দুটি ছবি। তাহলে সাংবাধানিকভাবে কি নির্বাচণে প্রার্থী হতে পারবেন তিনি? এমন প্রশ্নে ডিএ তায়েব বললেন, গঠনতন্ত্রের এ বিষয়টি আমার জানা নেই। গতবারও আমি ভোট দিয়েছি এবং আমি এ দেশের একজন নাগরিক।

এ প্রসঙ্গে ডিএ তায়েব বলেন, কোনো ব্যক্তিগত স্বার্থের জন্য নয়, শিল্পীদের স্বার্থরক্ষা করে সমিতিকে এগিয়ে নিতে চাই। ভোটের মাধ্যমে লড়াই করে নির্বাচনে জয় লাভের প্যানেলে আমি শতভাগ আশাবাদী। কারণ, শুরু থেকে প্রতিটি শিল্পীর বিপদে পাশে থেকেছি। যখন যেভাবে আমাকে ডেকেছে, চেষ্টা করেছি শিল্পী ও শিল্পের উপকারে নিজেকে নিবেদিত রাখতে।

আগামী ১৮ অক্টোবর এফডিসিতে হবে ২০১৯-২০ মেয়াদের নির্বাচন। সেখানে মৌসুমী-ডিএ তায়েব প্যানেলের প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন মিশা সওদাগর-জায়েদ খান প্যানেল। এই নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হবে আগামী ৪ অক্টোবর। জানা গেছে, আসন্ন নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে থাকবেন চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন।

Bellow Post-Green View