চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মৌলবাদের বিরুদ্ধে আরেকবার মুক্তিযুদ্ধের ঘোষণা চাই

ধর্মান্ধতা, মৌলবাদ ও সাম্প্রদায়িকতা নিপাত যাক স্বাধীন বাংলাদেশের মাটি থেকে। বাংলাদেশে মৌলবাদ ও সাম্প্রদায়িকতাবিরোধী আন্দোলন জোরদার হোক। মৌলবাদের উত্থানের ভয়াবহতা সারা বিশ্বের জন্য আজ সবচেয়ে বড় মনুষ্য সৃষ্ট দুর্যোগ এবং আজকের সভ্যতা ঝুঁকির সম্মুখীন। যেভাবে চলছে তাতে বাংলাদেশ খুব শীঘ্রই এর ভয়াবহতা প্রত্যক্ষ করার দ্বারপ্রান্তে। তাই আসুন সকলে অকুতোভয় হয়ে মৌলবাদের বিরুদ্ধে অবস্থান নেই। মনে রাখবেন আমাদের আজকের প্রচেষ্টা ভবিষ্যৎ প্রজন্মের আলোর মশাল।

স্বাধীনতার ৫০ বছরে, স্বাধীনতার মাসেই যখন আমার দেশের ভিন্ন ধর্মাবলম্বী ভাই-বোনদের বসত ভিটা ছেড়ে পালিয়ে যেতে হয় অজানা, অনিশ্চিত গন্তব্যে এবং মানবেতর জীবনযাপন করতে হয় স্বাধীন দেশে, স্বাধীনতার স্বপ্নদ্রষ্টা বঙ্গবন্ধুকে অসম্মান এর মুখোমুখি হতে হয়, সেই স্বাধীনতা দিবস ঘটা করে উদযাপনের মধ্যে কোনো সুখ এবং অর্থ খুঁজে পাই না।

ধর্মের নামে বৈষম্য, ঘৃণা ও সহিংসতার রাজনীতি ও সংস্কৃতি দূর হোক বাংলার মাটি থেকে। সকল মুসলমানরা মৌলবাদী নয়। বাংলাদেশের ধর্মনিরপেক্ষ, উদারপন্থী মুসলমানেরা মৌলবাদীদের বিরুদ্ধে আর একবার মুক্তিযুদ্ধের ঘোষণা দেবে সেই দিনের প্রতীক্ষায় রইলাম।

বিজ্ঞাপন

ধর্মীয় আগ্রাসন এবং সকল প্রকার বৈষম্য দূর হোক, সংখ্যালঘু মানুষেরা, আদিবাসীরা, খেটে খাওয়া মানুষের জীবনে মুক্তি আসুক। আরো মুক্তমনা আত্মার জন্ম হোক বাংলার ঘরে ঘরে। ৭১ এর মৃতদেহের গন্ধ এখনো বাতাস থেকে মুছে যায়নি এরই মধ্যে ‘জাতির পতাকা খামচে ধরেছে আজ পুরোনো শকুন’। স্বাধীনতা– আমাদের প্রিয় মানুষদের রক্তে কেনা এক অমূল্য উপহার। আমি একজন প্রবাসী মা। প্রবাসে বেড়ে উঠা আমার কচি কচি শিশুগুলোকে কেমন করে শেখাবো এই শকুনিরা এখনো কেন রক্ত পিপাসু? ৩০ লক্ষ মানুষের রক্ত শুষে নিয়েও এরা তৃপ্ত নয় আজও।

বীভৎস, ভয়ঙ্কর শকুনিগুলো আরো রক্ত ঝরাবে। বাচ্চাগুলোকে কি শেখাবো? কেমন করে শকুনিদের হাত থেকে লাল-সবুজ পতাকাকে বাঁচাতে হবে? স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে আসুন সকলে মিলে ধর্মান্ধতা, মৌলবাদ ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে কেমন করে আগামীতে যুদ্ধ চালিয়ে যাবো পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে তা নিয়ে সোচ্চার হই।

(এ বিভাগে প্রকাশিত মতামত লেখকের নিজস্ব। চ্যানেল আই অনলাইন এবং চ্যানেল আই-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে প্রকাশিত মতামত সামঞ্জস্যপূর্ণ নাও হতে পারে।)

বিজ্ঞাপন