চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মোবাইল ব্যাংকিংয়ে লেনদেন দ্বিগুণ করার সুযোগ  

প্রায় দেড় বছর পর আবারও মোবাইল ব্যাংকিং বা আর্থিক সেবার (এমএফএস) লেনদেন সীমা বাড়ানো হয়েছে। এখন আগের চেয়ে দ্বিগুণ টাকা জমা বা ক্যাশ ইন করা যাবে। আর উত্তোলন করা যাবে আগের চেয়ে আড়াই গুণ। একইভাবে এক হিসাব থেকে অন্য হিসাবে অর্থ স্থানান্তর সুবিধাও আড়াই গুণ বাড়ানো হয়েছে।

রোববার বাংলাদেশ ব্যাংকের পেমেন্ট সিস্টেমস ডিপার্টমেন্ট এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে লেনদেনের এ নতুন সীমা নির্ধারণ করে দিয়েছে।

বিজ্ঞাপন

জানা গেছে, বাজারে সমতা আনতে এ উদ্যোগ। আর এখন মোবাইল ব্যাংকিংয়ের লেনদেন অনেক বেড়েছে।

মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে ডিজিটাল হুন্ডি বিতরণের প্রমাণ পাওয়ায় ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে লেনদেন সীমা কমিয়ে দিয়েছেল কেন্দ্রীয় ব্যাংক। প্রায় আড়াই বছর পর কঠোর নিয়ন্ত্রণ করার পর আবার এই মাধ্যমে লেদেনের সীমা বাড়ানো হলো।

বিজ্ঞাপন

সব বাণিজ্যিক ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো বাংলাদেশ ব্যাংকের ওই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, এখন থেকে একজন গ্রাহক তার অ্যাকাউন্টে দিনে ৫ বারে ৩০ হাজার টাকা ক্যাশ ইন বা জমা করতে পারবেন। আর মাসে ২৫ বারে সর্বোচ্চ দুই লাখ টাকা ক্যাশ ইন করা যাবে। এত দিন একজন গ্রাহক একদিনে দুই বারে সর্বোচ্চ ১৫ হাজার টাকা জমা করতে পারতেন।

একই সঙ্গে দিনে সর্বোচ্চ ৫ বারে ২৫ হাজার টাকা তোলা বা ক্যাশ আউট করা যাবে। মাসে ২০ বারে এক লাখ ৫০ হাজার টাকা উত্তোলন করা যাবে। এত দিন একদিনে ২ বারে সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা তোলা বা ক্যাশ আউট করা যেত। মাসে ১০ বারে ৫০ হাজার টাকা উত্তোলন সুবিধা ছিল।

এছাড়া বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, একজন গ্রাহক তার ব্যক্তি মোবাইল হিসাবে সর্বোচ্চ তিন লাখ টাকা স্থিতি রাখতে পারবেন

সূত্র জানায়, ডাক বিভাগের ডিজিটাল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস ‘নগদ’-এর মাধ্যমে দৈনিক ৫০ হাজার টাকা লেনদেন করা যায়। এর মাধ্যমে প্রতি মাসে ৫ লাখ টাকা লেনদেন সুযোগ রয়েছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক এ নিয়ে বারবার আপত্তি জানালেও সরকার তাতে সায় দেয়নি। এর পরিপ্রেক্ষিতেই এমএফএসের লেনদেন সীমা বাড়িয়ে দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

Bellow Post-Green View