চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মে দিবসে অনন্ত জলিলের গার্মেন্টস খোলা, শ্রমিকদের বিক্ষোভ

মহান মে দিবসেও অভিনেতা অনন্ত জলিলের এজেআই গ্রুপের গার্মেন্টস খোলা রেখে শ্রমিকদের কাজ করানোর প্রতিবাদে কয়েক হাজার শ্রমিক ঢাকা-মানিকগঞ্জ মহাসড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করেছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শিল্প পুলিশ সাভার জোনের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আরিফ।

বিজ্ঞাপন

শ্রমিকদের অভিযোগ, তিনদিন হাজিরা কাটা হবে এমন ভয় দেখিয়ে তাদের সরকারি ছুটির দিনেও কারখানায় আসতে বাধ্য করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

মে দিবসেও কারখানা খোলা বিষয়ে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আরিফ জানান, কেবল এজেআই গ্রুপই নয়, এদিন এই শিল্পাঞ্চলে আরো ৫টি কারখানা খোলা রাখা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

শ্রমিক বিক্ষোভের খবরে গণমাধ্যমকর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে শ্রমিকদের বিক্ষোভরত অবস্থায় দেখে। সড়কে অবস্থান নেয়া শ্রমিকরা মালিকের বিরুদ্ধে সাংবাদিকদের কাছে নানা তথ্য দিতে থাকলে লাঠি হাতে তেড়ে আসে আরেকদল শ্রমিক। এরপরে সেখানে দু’দল শ্রমিকের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় গোটা এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় বেশ কয়েকজন সাংবাদিকও লাঞ্ছিত হন।

খবর পেয়ে ট্যানারি পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ জাহিদুল ইসলাম ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

এজেআই গ্রুপের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক অভিনেতা অনন্ত জলিলের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা হলেও তিনি ফোন ধরেননি। তার পক্ষে গ্রুপের প্রধান মানব সম্পদ কর্মকর্তা জাহিদুল হাসান মীর জানান, করোনাভাইরাসে ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী (পিপিই) তৈরির জন্য শ্রমিকদের কারখানায় আনা হয়েছিলো। শ্রমিকরা কাজ করতে ইচ্ছুক নন, এটা বোঝার সাথে সাথেই তারা কারখানায় ছুটি ঘোষণা করেছেন।

ক্রমাগত করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সাভার ও আশুলিয়ায় সকল কারখানা বন্ধের সুপারিশ করেছে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। অন্যদিকে শ্রমিকদের জটলা এড়াতে সাভারে বাতিল করা হয়েছে মে দিবসের সকল কর্মসূচি।