চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মেসি থাকলেন, কোম্যানের বার্সায় আর যা যা লাগবে

লিওনেল মেসিকে নিয়ে ধোঁয়াশা কেটে গেছে, আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড নিশ্চিত করেছেন অন্তত আসছে মৌসুমে বার্সা ছাড়ছেন না। তাতে ক্লাবের বুক থেকে নেমে গেছে বিশাল পাথর বোঝা। নিশ্চিন্তে তাই প্রতি মৌসুমের মতো ফের নতুন খেলোয়াড় কেনার মঞ্চে নেমে পড়েছে কাতালান ক্লাবটি।

দায়িত্ব নেয়ার পর নতুন করে বার্সেলোনাকে সাজানো শুরু করেছেন ডাচ কোচ রোনাল্ড কোম্যান। আপাতত তার বেশি প্রয়োজন একজন স্ট্রাইকার ও সেন্ট্রাল ডিফেন্ডার।

বিজ্ঞাপন

কোম্যান দায়িত্ব নিয়েই লুইস সুয়ারেজকে ছেড়ে দেয়ার কথা বলেছেন। উরুগুয়ে তারকা নিজ দায়িত্বে ক্লাব খুঁজছেন। জুভেন্টাসে যাওয়ার সম্ভাবনা খুব বেশি। সুয়ারেজের শূন্যস্থানে ইন্টার মিলানের লৌতারো মার্টিনেজকে বেশি পছন্দ কাতালান ক্লাবটির।

বিজ্ঞাপন

ইন্টারের ভাইস-প্রেসিডেন্ট হাভিয়ের জানেত্তি পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন তারা এ মৌসুমে লৌতারোকে বার্সায় যেতে দিতে চান না। যদি শেষপর্যন্ত ইন্টারের আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকারকে না পায় বার্সা, যোগ্য বিকল্পও ঠিক করেছে তারা, সেটি হতে পারেন মেম্ফিস ডিপাই।

বিজ্ঞাপন

ডিপাইয়ের সঙ্গে আগে থেকেই বেশ ভালো বোঝাপড়া কোম্যানের। বার্সার কোচ হওয়ার আগে এ স্ট্রাইকারকে নেদারল্যান্ডস জাতীয় দলের সহ-অধিনায়ক বানিয়েছেন তিনি। পুরনো শিষ্যকে ক্লাবে আনতে পারলে দুজনের বোঝাপড়াটা বেশ ভালোই হওয়ার কথা।

আরেক ডাচ শিষ্যকে আনার পরিকল্পনা আছে কোম্যানের। তিনি হতে পারেন লিভারপুলের মিডফিল্ডার জর্জিনিয়ো উইনাল্ডাম। তবে ১৫ মিলিয়ন ইউরো দামের মিডফিল্ডারকে এখনই আনতে চায় না বার্সা। নিতান্তই আর কোনো উপায় না থাকলে উইনাল্ডামকে ন্যু ক্যাম্পে আনা হবে।

ইভান রাকিটিচ ও আর্তুরো ভিদালকে ছেড়ে দিলেও ফ্রেঙ্কি ডি ইয়ং, মিরালেম পিয়ানিচ, সার্জি রবের্তো, কার্লেস অ্যালেনা, রিকি পুইদের নিয়ে মাঝমাঠ যথেষ্ট সমৃদ্ধ বার্সার।

সেন্ট্রাল ডিফেন্স নিয়ে মাথাব্যথা যদিও বেশ বার্সার। স্যামুয়েল উমতিতি আর জা-ক্লেয়ার তোদিবোকে ছেড়ে দিতে চাইলেও দুজনের বিকল্প এখনো পায়নি ক্লাবটি। ম্যানচেস্টার সিটি থেকে এরিক গার্সিয়াকে আনতে চাইলেও দুপক্ষের কথা আটকে থাকায় আপাতত নতুন কোনো গতি দেখা যাচ্ছে না।

কোম্যান চাইলে জুনিয়র ফিরপোকে সেন্ট্রাল ডিফেন্সে তুলে আনতে পারেন। সেক্ষেত্রে জেরার্ড পিকে ও ক্লেমেন্ত ল্যাংলের অভিজ্ঞতা ভীষণ প্রয়োজন হবে তার।