চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মেসির জোড়া গোলে তৃপ্ত পচেত্তিনো

লিগ ওয়ানের ম্যাচে পিএসজির বিপক্ষে ঘরের মাঠে পাত্তাই পায়নি মন্টেপিলিয়ের। লিওনেল মেসির জোড়া গোলে ৪-০ ব্যবধানে বড় জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে মাউরিসিও পচেত্তিনো দল।

ম্যাচ শুরুর ছয় মিনিটের মাথায় কাইলিয়ান এমবাপের বাড়ানো বল দুর্দান্তভাবে জালে পাঠিয়ে ফরাসি জায়ান্টদের এগিয়ে নেন মেসি। লিড নিয়ে একের পর এক আক্রমণে মন্টেপিলিয়ের রক্ষণের পরীক্ষা নিতে থাকে পিএসজি। ২০ মিনিটে ফের এমবাপের বাড়ানো বলে নিয়ন্ত্রণ নিয়ে দারুণ নৈপুণ্যে গোলরক্ষককে পরাস্ত করে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন মেসি।

Reneta June

ম্যাচের ২৬ মিনিটে ব্যবধান ৩-০ করেন মেসির জাতীয় দলের সতীর্থ অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। পরে আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি মন্টেপিলিয়ের। ৩-০ গোলে এগিয়ে থেকে প্রথমার্ধের খেলা শেষ করে পিএসজি।

বিজ্ঞাপন

দ্বিতীয়ার্ধে নেমেও প্রতিপক্ষের উপর চাপ অব্যাহত রাখে পিএসজি। তবে গোল আসছিল না। পিএসজির একের পর এক আক্রমণ সামলাতে গিয়ে বক্সে ফাউলের ভুল করে বসে মন্টেপিলিয়ের রক্ষণযোদ্ধারা। পেনাল্টির সুযোগ কাজে লাগিয়ে ব্যবধান ৪-০ করে নেন এমবাপে।

বাকি সময় পিএসজিকে গোলবঞ্চিত রাখতে পারে মান্টেপিলিয়ের। শিষ্যদের এমন পারফরম্যান্সে বেশ খুশি পচেত্তিনো।

‘এটি সত্যিকারের তৃপ্তি দেয়, ভালো পারফরম্যান্স ছিল। আমরা ভালো খেলা শুরু করেছি। ফুটবলারদের প্রতি আমি সন্তুষ্ট। আমাদের আধিপত্য দেখানো গুরুত্বপূর্ণ ছিল, পিএসজি শিরোপা উদযাপনের যোগ্য।’

এমন জয়ে সমর্থকদের খুশি করতে পেরেছেন, বলছেন ডি মারিয়া- ‘একটি দুর্দান্ত ম্যাচ খেলেছি। শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত খেলার নিয়ন্ত্রণ করেছি। অনেক সুযোগ ছিল, ম্যাচে নিয়ন্ত্রণ ছিল। এটি সত্যিই একটি পরিপূর্ণ খেলা। খুশির কারণ আমরা দেখিয়েছি ফরাসি চ্যাম্পিয়ন আমরাই। আশা করি সমর্থকদের খুশি করতে পেরেছি।’

জয়ে ৩৭ ম্যাচে ৮৩ পয়েন্ট এখন পিএসজির। আগেই ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ান শিরোপা নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় নিয়মরক্ষার শেষ ম্যাচে আগামী ২২ মে মেটজের বিপক্ষে নামবে ফরাসি জায়ান্টরা।