চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মেসিদের নামে কুৎসা রটানোর অভিযোগ থেকে মুক্তি পেল বার্সা

নিরীক্ষা শেষে অর্থ খরচ করে খেলোয়াড়দের নামে কুৎসা রটানোর অভিযোগ থেকে মুক্তি মিলেছে বার্সেলোনার। প্রাইজ ওয়াটারহাউস কুপারাস নামের সেই প্রতিষ্ঠানটি নিরীক্ষা শেষে ঘোষণা দিয়েছে, অভিযোগকৃত কোনো তৃতীয়পক্ষের সংশ্লিষ্টতার কোনো প্রমাণ তারা পায়নি।

আইথ্রি ভেঞ্চার নামের এক প্রতিষ্ঠানের একাধিক অঙ্গ প্রতিষ্ঠানে ক্লাবের বর্তমান ও সাবেক খেলোয়াড়দের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপদস্থ করার জন্য প্রচুর অর্থ ঢেলেছেন বর্তমান বার্সা সভাপতি জোসেপ মারিয়া বার্তেমেউ, গত ফেব্রুয়ারিতে কাতালোনিয়ান রেডিও কাদেনা সারের এমন দাবির পরপরই ক্ষোভে ফেটে পড়েছিলেন খেলোয়াড়রা। সভাপতির সঙ্গেও বেড়েছে দূরত্ব।

বিজ্ঞাপন

সেটারই নিরীক্ষা শেষে প্রাইজ ওয়াটারহাউস কুপারাস জানিয়েছে, এমন কোনো কাজের জন্য ক্লাব থেকে আইথ্রি ভেঞ্চারকে অর্থ দেয়া হয়েছে বলে কোনো প্রমাণ তারা পায়নি। অন্তত দালিলিকভাবেই বার্সার সমস্ত অর্থের লেনদেন সম্পন্ন হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

নির্দোষ প্রমাণ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই যারা এসব দাবি করেছে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের ঘোষণা দিয়েছে বার্সা। সোমবার বিবৃতিতে ক্লাবটির পক্ষে জানানো হয়েছে, ‘বোর্ড পরিচালকদের পক্ষ থেকে ক্লাবকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য। যারা এমন অভিযোগ ও অপ্রমাণিত সত্য দিয়ে প্রতিষ্ঠানের ভাবমূর্তি নষ্ট করেছে তাদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

গত ফেব্রুয়ারিতে রেডিও কাদেনা সারের পক্ষ দাবি করা হয়, খেলোয়াড়দের বিশেষ করে অধিনায়ক লিওনেল মেসি ও ডিফেন্ডার জেরার্ড পিকেকে ফেসবুক ও টুইটারের মাধ্যমে অপদস্থ করার জন্য আইথ্রি ভেঞ্চারের একাধিক অঙ্গ প্রতিষ্ঠানকে বেশ মোটা অংকের টাকা দিয়েছেন বার্তেমেউ। জাভি হার্নান্দেজ, কার্লোস পুয়োল ও সাবেক কোচ পেপ গার্দিওলার নামেও কুৎসা রটানোর দাবি করে কাদেনা সার।

দুই প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী অগাস্টি বেনেদিতো এবং ভিক্টর ফন্টকেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আক্রমণ করা হয়েছে। বিশেষ করে ডেভিস কাপ আয়োজন করায় পিকে ছিলেন সমালোচনার কেন্দ্রে। মেসির স্ত্রী আন্তোনেল্লা রোকুজ্জোকেও লক্ষ্যবস্তু করা হয়।

অভিযোগ ওঠার পরপরই আইথ্রি ভেঞ্চারের সঙ্গে চুক্তি বাতিল করে বার্সা, যাদের কাজ ছিল ক্লাবটির অনলাইনে সামাজিক যোগাযোগের দিকটি লক্ষ্য রাখা ও বিশ্লেষণ করা। একইসঙ্গে আইনি ব্যবস্থা নেয়ারও সিদ্ধান্ত নেয় কাতালোনিয়ান ক্লাবটি।