চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মেসিকে ক্ষমা চাওয়ার পরামর্শ

কোপা আমেরিকার রেফারিং নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করেছিলেন আর্জেন্টিনার অধিনায়ক লিওনেল মেসি। ধারণা করা হচ্ছে এ জন্য বড় রকমের নিষেধাজ্ঞা কিংবা শাস্তি পেতে পারেন তিনি। শাস্তির পরিমাণটা যেন কিছুটা কম হয় সেজন্য ৩২ বছর বয়সী মহাতারকাকে সাউথ আমেরিকান ফুটবলের অভিভাবক কনমেবলের কাছে ক্ষমা চাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন আর্জেন্টিনার ক্রীড়া আদালত প্রতিনিধি।

সদ্য শেষ হওয়া কোপা আমেরিকা ছিল মেসির জন্য দুর্যোগের মতো। আগের টানা দুই ফাইনাল হেরে এই কোপা থেকে ভালো কিছুর আশায় ছিলেন আর্জেন্টিনার অধিনায়ক। সেটা তো হয়নি বরং তৃতীয় হয়ে খুশি থাকতে হয়েছে মেসির দলকে। চিলির বিপক্ষে তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে মার খেয়ে উল্টো লাল কার্ডও দেখতে হয়েছে তাকে!

বিজ্ঞাপন

সেমিফাইনালে ব্রাজিলের বিপক্ষে দুটি পেনাল্টি না দেয়া ও চিলির বিপক্ষে লাল কার্ড খেয়ে ম্যাচ শেষে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখান মেসি। আসেননি তৃতীয় হওয়ার দলের জন্য বরাদ্দ মেডেল নিতেও। ম্যাচ পরিচালনাকারী রেফারিদের ‘দুর্নীতিবাজ’ বলেও আখ্যায়িত করেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক।

বিজ্ঞাপন

তার এমন মন্তব্যের পর উত্তপ্ত হয়ে ওঠে সাউথ আমেরিকান ফুটবলের আবহাওয়া। মেসি যে একটা বড় রকমের শাস্তির দ্বারপ্রান্তে সেটা একরকম সবারই জানা। ধারণা করা হচ্ছে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ হতে পারেন মেসি। তাহলে আগামী বছর কোপা ও ২০২২ বিশ্বকাপ বাছাইয়ে খেলতে পারবেন না ৩২ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড।

কঠিন শাস্তি ও দেশের কথা বিবেচনা করে মেসিকে ক্ষমা চাইতে বলেন কোর্ট অফ অরব্রিট্রেশন ফর স্পোর্টসের আর্জেন্টাইন প্রতিনিধি গুস্তাবো আবেরু। শুধু তাই নয়, আর্জেন্টাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনকেও অনুরোধ করেছেন তারা যেন মেসিকে এ বিষয়ে রাজী করায়।

‘মেসির প্রতি আমার উপদেশ রইলো সে যেন ক্ষমা চায়, কারণ তারা (কনমেবল) তাকে কঠিন শাস্তি দিতে পারে। সে যদি ক্ষমা চায় তাহলে সব বিষয়ে কনমেবল তাকে শাস্তি দিতে পারবে না।’

Bellow Post-Green View