চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মুহিবুল্লাহ হত্যা: অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে পরিবারের মামলা

কক্সবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গুলি করে রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যার ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। 

মরদেহ দাফনের পর রাতে উখিয়া থানায় হত্যা মামলা রুজু করেন নিহতের ছোট ভাই হাবিবুল্লাহ। এই মামলায় আসামি করা হয়েছে অজ্ঞাতনামাদের।

কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ রফিকুল ইসলাম জানিয়েছেন, নিহত রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহর দাফন শেষে রাতে উখিয়া থানায় পরিবারের পক্ষ থেকে একটি হত্যা মামলা রুজু করা হয়েছে। উখিয়া থানার মামলা নাম্বার ১২৬/৩০/২০২১। মামলায় অজ্ঞাতনামাদের আসামি করা হয়েছে। অজ্ঞাতনামাদের কোন সংখ্যাও উল্লেখ করা হয়নি।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, অজ্ঞাতনামা আসামি হলেই পুলিশের জন্য চ্যালেঞ্জ হয়ে যায়। তদন্ত করে, আলামত পর্যবেক্ষণ করে, আসামি শনাক্ত করে গ্রেপ্তার করতে হবে।

উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সঞ্জুর মোর্শেদ বলেন, মামলা রুজু হওয়ার পর থেকে, অজ্ঞাতনামা আসামিদের শনাক্ত করে গ্রেপ্তারে পুলিশের তৎপরতা শুরু হয়ে গেছে।

২৯ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে ৮টার দিকে উখিয়া কুতুপালং লম্বাশিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প এলাকায় ইষ্ট-ওয়েষ্ট ১নং ব্লকে মুহিবুল্লাহর নিজ অফিসে অজ্ঞাত বন্দুকধারীরা গিয়ে ৫ রাউন্ড গুলি করে। এসময় ৩ রাউন্ড গুলি মুহিবুল্লাহর বুকে লাগলে তিনি পড়ে যান। খবর পেয়ে এপিবিএন সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে ‘এমএসএফ’ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বিজ্ঞাপন