চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মুশফিক-মিরাজ ক্যারিয়ার সেরা র‌্যাঙ্কিংয়ে

রিয়াদ-তাইজুল-মুমিনুল এগিয়েছেন

মিরপুর টেস্টে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ডাবল সেঞ্চুরি করা মুশফিক, অপরাজিত ফিফটি আর ইনিংসে পাঁচ উইকেট নিয়ে দুর্দান্ত অলরাউন্ড ফারফর্ম করা মিরাজ আইসিসি র‌্যাঙ্কিংয়ে নিজেদের পারফরম্যান্সের পুরস্কার পেয়েছেন।

মুশফিকুর রহিম টেস্ট ব্যাটসম্যানদের র‌্যাঙ্কিংয়ে ২০-এ ঢুকেছেন প্রথমবার, যা তার ক্যারিয়ার সেরা উন্নতি। মেহেদী হাসান মিরাজ সাদা পোশাকের বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে ক্যারিয়ার সেরা অবস্থানে পা রেখেছেন।

শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে মুশফিক খেলেছিলেন অপরাজিত ২১৮ রানের ইনিংস। যেটি টেস্টে বাংলাদেশিদের মধ্যে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের ইনিংস। ইনিংসটি মিডলঅর্ডার ভরসাকে র‌্যাঙ্কিংয়ের ১৯ নম্বর অবস্থানে টেনে এনেছে।

টেস্ট ব্যাটসম্যানদের মধ্যে ২৫-এ আছেন সাকিব ও ৩১তম অবস্থানে তামিম ইকবাল। শেষ সিরিজে দুজনেই সাদা পোশাকে নামতে পারেননি চোটের কারণে। মিরপুরে দেড়শ পেরোনো ইনিংস খেলা মুমিনুল আছেন ৩৫ নম্বরে। উন্নতি হয়েছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের, আছেন ৫৭তম অবস্থানে।

বিজ্ঞাপন

মিরাজ দুই ইনিংসে অপরাজিত ছিলেন, যার একটিতে ছিল ফিফটি। তবে ব্যাটের চেয়ে বোলিংয়েই র‌্যাঙ্কিং উন্নতি চোখে পড়ার মতো তার। মিরপুর টেস্টে দুই ইনিংস মিলিয়ে ৮ উইকেট নিয়ে ২৮তম অবস্থানে এসেছেন এ অফস্পিন-অলরাউন্ডার। যেটি তার ক্যারিয়ার সেরা।

বাঁহাতি তাইজুল ইসলাম সিরিজে ১৮ উইকেট নিয়ে মিরাজের আগের ধাপে ২৭ নম্বরে আছেন। সাকিব আছেন ২১-এ। মোস্তাফিজের অবস্থান ৫২তে।

আঙুলের চোটে জিম্বাবুয়ে সিরিজে খেলতে না পারা সাকিব আল হাসান শীর্ষ ধরে রেখেও আছেন আলোচনায়। অলরাউন্ডারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষস্থান অক্ষত আছে টাইগারদের টেস্ট ও টি-টুয়েন্টি অধিনায়কের। তবে ভারতের রবীন্দ্র জাদেজা ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছেন তিন পয়েন্ট দূরে থেকে।

দল হিসেবে টেস্ট দলগুলোর মধ্যে ৯-এ আছে ৬১ পয়েন্ট অর্জন করা বাংলাদেশ। জিম্বাবুয়ে সিরিজে একটি টেস্ট হেরে ৬ রেটিং পয়েন্ট খুইয়েছে টাইগাররা।

বিজ্ঞাপন