চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মুমিনুল আগে ব্যাটসম্যান, পরে অধিনায়ক

সাকিব আল হাসান দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ হওয়ায় অনেকটা অপ্রত্যাশিতভাবেই টেস্ট নেতৃত্ব পেয়েছেন মুমিনুল হক। প্রথম মিশন আবার ভারতের মতো প্রতিপক্ষের বিপক্ষে, তাদেরই মাটিতে। ইন্দোরে অধিনায়কের জ্যাকেট গায়ে টস করতে নামবেন, নতুন চ্যালেঞ্জ, নতুন পথচলা বাঁহাতি এ ব্যাটসম্যানের।

হুট করে পাওয়া দায়িত্বকে চাপ হিসেবে মানতে নারাজ টাইগারদের সাদা পোশাকের দলপতি। বরং, অধিনায়কত্ব থেকে পাওয়া শিক্ষাকে কাজে লাগিয়ে মুমিনুল হয়ে উঠতে চান একজন পরিপূর্ণ ব্যাটসম্যান।

বিজ্ঞাপন

অধিনায়কত্বে যে একদমই নতুন মুমিনুল এমনও নয়। বিভিন্ন সময়ে সামলেছেন বিসিবি একাদশ, বাংলাদেশ ‘এ’ দলের দায়িত্ব। নেতৃত্ব দিয়েছেন বিপিএলেও। তবে জাতীয় দলে সবকিছু প্রথমের যে শিরশিরে অনুভূতি থাকে, তা অনুভব করলেও সুযোগটাকে কাজেই লাগাতে চান লিটল মাস্টার।

‘একজন জুনিয়র হিসেবে আমার কাছে এটা বেশ দারুণ এক সুযোগ। এই সুযোগটা সবাই পায় না। চেষ্টা করবো সুযোগটাকে কাজে লাগানোর।’

বিজ্ঞাপন

দলে মুমিনুলের চেয়ে সিনিয়র ক্রিকেটার আছেন দুজন- মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও মুশফিকুর রহিম। ভারতের মাটিতে নেমেই এ দুজনের সঙ্গে আগে ভাগে কথা বলেছেন নতুন অধিনায়ক, ‘দলে যে দুজন সিনিয়র আছেন, তারা আমার সাথে কথা বলেছেন। এটা আমার জন্য ভালো। এখানে আসার পরে যতটুকু দরকার ততটুকুই বলেছেন।’

নতুন দায়িত্ব পাওয়ার আগে মুমিনুলের নামের সঙ্গে জুড়েছে ‘টেস্ট স্পেশালিষ্ট’ উপাধি। টেস্ট খেলতে নামলেই বাঁহাতি তারকার ব্যাটের দিকে থাকে প্রত্যাশার নজর। অধিনায়কত্বের কারণে আবার চাপ চাপবে নাতো ব্যাটে?

মুমিনুলের মতে, ‘যখনই আমি অধিনায়কত্ব পেয়েছি তেমন কিছু অনুভব করিনি। অধিনায়কত্ব নেয়ার আগে যেমন ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলেছিলাম, এখনও সে হিসেবেই খেলব। অধিনায়ক হলে কিছু ইতিবাচক দিক থাকে। সেটাই করার চেষ্টা করি। হয়তো ক্রিকেটীয় জ্ঞানটা একটু বাড়ে। হয়তো এগুলো বাড়বে। তখন আমার ব্যাটিং হয়তো আরও ভালো হবে।’

অধিনায়ক মুমিনুলের দর্শন কী হবে সেটা ঠিক করা হয়ে ওঠেনি। জানালেন পরিস্থিতি ভেদেই পাল্টাবে কৌশল, ‘আক্রমণাত্মক খেলবো নাকি রক্ষণাত্মক, সেটা নির্ভর করে পরিস্থিতির উপর। হতে পারে আগ্রাসী ক্রিকেটের মধ্য রক্ষণাত্মক খেলবো, রক্ষণের মাঝে আগ্রাসী ক্রিকেট খেলবো।’

‘আমাদের কোনো চাপ নেই, কারণ আমরা ওরকম আশা নিয়েও এখানে আসিনি। আমরা আমাদের ভালো কিছু করার চেষ্টাই করবো। জিততেই হবে এমন চাপ নিলে খেলাতেও চাপ পড়ে যাবে।’

Bellow Post-Green View